[Sassy_Social_Share]

অনলাইন ডেস্ক: এবার রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে যুক্তরাজ্যে আছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে বিবিসির কাছে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সাক্ষাৎকারে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথকে স্মরণ করা ছাড়াও কথা হয়েছে বাংলাদেশের আসন্ন নির্বাচন ও গুমের অভিযোগ নিয়ে।

এদিকে বিবিসির প্রশ্ন ছিল, বাংলাদেশের আগামী বছরে অনুষ্ঠিতব্য জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে। সেটি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ভাবনা ও গুম সম্পর্কে জাতিসংঘের অভিযোগ বিষয়ে জানতে চাইলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, অনেক মানুষই অভিযোগ তুলতে পারে। কিন্তু তার কতটুকু সত্য তা আপনাকে বিচার করতে হবে। এর আগে কোনো মন্তব্য করা উচিত না।

তিনি আরও বলেন, আমাদের দেশে দীর্ঘসময় সেনা শাসক দেশ শাসন করেছে। তারা রাজনৈতিক দলও গঠন করেছে। তারা মানুষের কাছে গিয়ে ভোট চায়নি। ক্ষমতায় থাকার জন্য তারা সেনাবাহিনী ও প্রশাসন ব্যবহার করেছে। শুধুমাত্র আওয়ামী লীগের সময়ই আপনি সুষ্ঠু নির্বাচন দেখতে পাবেন।

এদিন সাক্ষাৎকারের শুরুতে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তিনি যুক্তরাজ্যের রানি ছিলেন সেটি নিয়ে সন্দেহের অবকাশ নেই্। কিন্তু তিনি তো কমনওয়েলথেরও নেতা ছিলেন। তাই কমনওয়েলথের সদস্য দেশ হিসেবে তিনি আমাদের কাছে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ছিলেন। তিনি শুধু রানিই ছিলেন না। তিনি একজন মমতাময়ী ও মাতৃত্বসুলভ ব্যক্তি ছিলেন। তার সাথে যখনই আমার সাক্ষাৎ হয়েছে তখনই সেই বিষয়টি আমি বুঝেছি।

এদিকে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের সঙ্গে ব্যক্তিগত স্মৃতি রোমন্থন করতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ১৯৬১ সালে যখন তিনি তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তান সফর করেন, তখন তাকে দেখার সৌভাগ্য হয়েছিল আমার। তাকে ভালোভাবে দেখার জন্য হাতে বাইনোকুলার নিয়ে জানালায় দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করেছিলাম। আমি যে ৭টি কমনওয়েলথ সম্মেলনে যোগ দিয়েছি, প্রতিবারই তার সঙ্গে সাক্ষাৎ ও কথা বলার সুযোগ হয়েছে।