এম.এ আজিজ রাসেল:
ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে ৪৯ তম জাতীয় স্কুল, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা গ্রীষ্মকালীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতা। বুধবার বিকালে অনুষ্ঠিত ফুটবলে বালক ইভেন্টের ফাইনালে কক্সবাজার সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়কে ৩—০ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় চকরিয়া কেন্দ্রীয় উচ্চ বিদ্যালয়। ফুটবলে ফাইনালে বালিকায় ঈদগাঁও আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় উখিয়া ভালুকিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। এছাড়া কাবাডি বালকে পেকুয়া বারবাকিয়াকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় কক্সবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। বালিকায় উখিয়া কুতুপালং উচ্চ বিদ্যালয়কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় কক্সবাজার সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়। হ্যান্ডবলে বালকে চ্যাম্পিয়ন হয় সাহিত্যিকা উচ্চ বিদ্যালয়। বালিকায় হ্যান্ডবলে আমেনা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়কে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন রামু বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়।

পরে সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) বিভীষণ কান্তি দাশ।

তিনি বলেন, ‘শিক্ষার্থীদের আধুনিক প্রযুক্তিনির্ভর শিক্ষায় শিক্ষিত করে তুলতে হবে। যাতে তারা পরিবর্তিত বিশ্বের সঙ্গে তাল মেলাতে পারে। এ জন্য সরকার শিক্ষা ব্যবস্থার সার্বিক মানোন্নয়নের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তাই পড়ালেখার পাশাপাশি খেলাধুলা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

জেলা শিক্ষা অফিসার মো. নাছির উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জেলা ক্রীড়া অফিসার মাঈন উদ্দিন মিলকী ও কক্সবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাম মোহন সেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন জেলা স্কাউট লিডার ফরিদুল আলম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন কক্সবাজার সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক মোক্তার আহমদ ও জেলা স্কাউটের সম্পাদক তপন শর্মা।

পরে ছেলে ও মেয়েদের ফুটবল, কাবাডি, দাবা, সাঁতার এবং হ্যান্ডবল প্রতিযোগিতায় বিজিত—বিজয়ীদের পুরস্কার তুলে দেন অতিথিরা।