মো. নুরুল করিম আরমান, লামা প্রতিনিধি:

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) বান্দরবান জেলা শাখার সভাপতি, সাবেক এমপি ও জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মাম্যাচিং বলেছেন, নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস পত্রের দাম বাড়ানোর কারণে দেশের মানুষ খুবই কষ্টে আছে। লোডশেডিং দৈনিক এক ঘন্টা করার কথা বলে ক্রমাগত লোডশেডিং দিচ্ছে সরকার। ফলে ভোগান্তিতে আছে সারা দেশের মানুষ। দেশে জ্বালানি তেল, পরিবহন ভাড়া, সকল প্রকার দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি এবং ভোলায় ছাত্রদল নেতা নূরে আলম ও স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা আব্দুর রহিম হত্যার প্রতিবাদে কেন্দ্রীয় ঘোষিত কর্মসূচি অংশ হিসেবে রবিবার বিকেলে লামা উপজেলায় আয়োজিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। এ সময় তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ মানে ভোট চোর, ভোট চোর মানে আওয়ামী লীগ। ইভিএম মানে ভোট চুরির নতুন কৌশল, তাই এ সরকারের অধীনে বিএনপি নির্বাচনে যাবেনা। নেতাকর্মীদের খুন, গুম হত্যা আমরা এখনো ধর্য্য ধরে আছি, যেদিন দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাবে, সেদিন থেকে কেহই রেহাই পাবেন না বলেও মন্তব্য করেন মাম্যাচিং। উপজেলা বিএনপির একাংশ সভাপতি মো. আবদুর রবের সভাপতিত্বে গজালিয়া বাস স্টেশনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বান্দরবান জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মো. জাবেদ রেজা, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. জসিম উদ্দিন, উপজেলা বিএনপির একাংশ সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমিন প্রমুখ বিশেষ অতিথি ছিলেন। এর আগে ‘তেলের দাম কমাই দে, নইলে গদি ছেড়ে দে’ ‘তেলের দাম বৃদ্ধি কেন, জবাব চাই জবাব চাই’ -এমন শ্লোগান সম্বলিত উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে শত শত নেতাকর্মী বিক্ষোভ মিছিল করে সমাবেশে যোগ দেন।