নিজস্ব প্রতিবেদক:
কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে গোসল করতে নেমে ভেসে গিয়ে তানভিরুল হক তানিম(১৪) নামের এক ছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় মুমূর্ষু অবস্থায় একজনকে উদ্ধার করেছে লাইফ গার্ড ও বীচকর্মীরা।

সোমবার (৪জুলাই) বিকেল ৪টার দিকে লাবণী পয়েন্ট এই ঘটনা ঘটে।

সাগরের পানিতে ডুবে নিহত শিক্ষার্থী হলেন, সদর উপজেলার বাস টার্মিনাল এলাকার। সে বায়তুশ শরফ জব্বারিয়া একাডেমির ৭ম শ্রেণীর ছাত্র। জীবিত উদ্ধার হাওয়া নাম মাহিম। সেই একই এলাকার নুরুল ইসলাম ভুট্টোর ছেলে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন কক্সবাজার টুরিস্ট পুলিশ জোনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজাউল করিম।

মৃত্যু হওয়া কলেজ ছাত্রের বন্ধুদের বরাতে তিনি বলেন, দুপুরে সদর উপজেলার টার্মিনাল এলাকা থেকে স্কুল পড়ুয়া বন্ধুরা মিলে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে বেড়াতে আসে। সৈকতে ফুটবল খেলার পর বন্ধুরা মিলে সাগরে গোসলে নামে। গোসলের এক পর্যায়ে টিউব উল্টে দুই বন্ধু সাগরে ভেসে যেতে থাকে। পরে চিৎকার করলে লাইফ গাট কর্মীরা গিয়ে উদ্ধার করেন।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আরও বলেন, লাইফ কর্মীরা খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক জেটস্কি ও রেসকিউ বোট নিয়ে একজনকে উদ্ধার করলেও অপরজনের খোঁজ পাননি। সাগরের বিভিন্ন এলাকায় খোঁজাখুঁজির ৪০ মিনিট পর পানিতে ভাসমান অবস্থায় নিখোঁজ থাকা স্কুল ছাত্রকে উদ্ধার করা হয়। পরে তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে আনা হয়।

কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা (আরএমও) মো. আশিকুর রহমান বলেন, সকালে সাগরে গোসলে ভেসে যাওয়া মুমূর্ষু অবস্থায় দুইজনকে হাসপাতালে আনা হয়। এদের মধ্যে একজনের পথিমধ্যেই মৃত্যু হয়। নিহতের মৃতদেহ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে রয়েছে বলে জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজাউল করিম।

 
  
%d bloggers like this: