জালাল আহমদ,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি:
সরকারী চাকুরীতে আবেদনের বয়সসীমা ৩০ বছর থেকে ৩৫ বছরে উন্নীত করা সহ চার দফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে সংবাদ সম্মেলন করেছে বাংলাদেশ ছাত্র-যুব কল্যাণ পরিষদ।
চার দফা দাবি হলো:
১/ চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা বৃদ্ধি করে ন্যূনতম ৩৫ বছরে উন্নীত করতে হবে।
২/চাকরিতে আবেদনের ফি কমিয়ে ৫০-১০০ টাকার মধ্যে নির্ধারণ করতে হবে।
৩/নিয়োগ পরীক্ষা সমূহ জেলা কিংবা বিভাগীয় পর্যায়ে নিতে হবে।
এবং
৪/ সকল নিয়োগ পরীক্ষা ৩-৬ মাসের মধ্যে সম্পন্ন করতে সুনির্দিষ্ট নীতিমালা বাস্তবায়ন করতে হবে
আজ ৯ জুন বৃহস্পতিবার বিকেলে সাড়ে চারটার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির অফিসে বাংলাদেশ ছাত্র- যুব কল্যাণ পরিষদ কর্তৃক আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের প্রধান সমন্বয়ক মোজাম্মেল হক মিয়াজী লিখিত বক্তব্যে এই চার দফা দাবির কথা তুলে ধরেন।

তিনি আরো বলেন ,২০১৮ সালে এই সরকার ক্ষমতায় আসার আগে কথা দিয়েছিল তারা ক্ষমতায় এলে চাকরিতে আবেদনের বয়সসীমা বৃদ্ধি করবে এবং এক কোটি মানুষের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করবে।
তারা কথা দিয়ে কথা রাখে নি। তারা যুব সমাজের সাথে তালবাহানা, তামাশা ও অপমান করে আসছে।এ সময় তিনি এবারের বাজেটে যুবকদের কর্মসংস্থান ও উদ্যোক্তা হওয়ার জন্য বিশেষ বরাদ্দ রাখার আহ্বান জানান।
চার দফা দাবি আদায় না হলে খুব দ্রুত আন্দোলনের মাঠে নামার হুঁশিয়ারি দেন।
লিখিত বক্তব্যের বাইরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সংগঠনের আরেক ‌‌ সমন্বয়ক সুরাইয়া
ইয়াসমিন বলেছেন, চাকরিতে আবেদনের বয়স শেষ হয়ে যাওয়ার কারণে অনেকেই আন্দোলনের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে।২০১২ সাল থেকেই এই আন্দোলন বিভিন্ন ব্যানারের অধীনে পরিচালিত হয়ে আসছে। আমাদের দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবো।
এ সময় আন্দোলনের সমন্বয়ক ইউসুফ আলী শাকিলসহ কয়েকজন উপস্থিত ছিলেন।

 
  
%d bloggers like this: