এম.মনছুর আলম, চকরিয়া :
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা মতে কক্সবাজারের চকরিয়ায় অনিবন্ধিত, অনুমোদন বিহীন ক্লিনিক, ল্যাব, ডায়াগনোস্টিক সেন্টার এবং হাসপাতালে অভিযান চালিয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স কর্তৃপক্ষ। এসময় অনুমোদন বিহীন ও বৈধ কাগজপত্র না থাকার দায়ে ৪টি ল্যাব ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারকে সীলগালা করা হয়।

সোমবার (৩০ মে) সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত উপজেলার খুটাখালী ও ডুলাহাজারা এলাকায় স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ শোভন দত্তের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালনা করেন।

চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: শোভন দত্ত জানান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা মোতাবেক সারাদেশ ব্যাপী অনিবন্ধিত হাসপাতাল, ক্লিনিক, ল্যাব, ডায়াগনিষ্টক সেন্টারের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। তার ধারাবাহিকতায় চকরিয়া উপজেলার খুটাখালী ও ডুলাহাজারা ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানকালে বৈধ কাগজপত্র না থাকার দায়ে ৪টি প্যাথলজি ল্যাব ও ডায়গস্টিক সেন্টারকে বন্ধ করে দেয়া হয়। যেসব প্যাথলজি ল্যাব ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার সীলগালা করে দেয়া হয়েছে সেগুলো হলো, খুটাখালী এলাকার ডক্টরস ল্যাব, খুটাখালী প্যাথলজি সেন্টার, ডুলাহাজারা এলাকার ফজল ফার্মেসির রোগী ভর্তি করার রুম কেয়ার ল্যাব ও ডুলহাজারা এলাকার সেবা ডায়াগনস্টিক সেন্টার। এছাড়াও আরো ৪-৫টি ক্লিনিক ও হাসপাতালে অভিযান চালানো হয়। তৎমধ্যে অনেক ক্লিনিক ল্যাব ও হাসপাতালে বৈধ কোন ধরণের কাগজ দেখাতে পারেনি। তাই ওইসব প্রতিষ্ঠানকে আগামী ১৫ দিন সময় বেঁধে দেয়া হয় কার্যক্রম বন্ধে।
অভিযানকালে এসময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডাঃ মোঃ সাইমুল ইসলাম, মেডিকেল অফিসার, ডাঃ আ.জ.ম সাদেক ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্যানিটারী ইন্সপেক্টর জয়নাল আবেদীন। ##