বিশেষ প্রতিবেদক
কক্সবাজার সদর হাসপাতালের লাশ সংরক্ষণের জন্য রয়েছে একটি মাত্র ফ্রিজ। সেটিও ১০ দিন ধরে নষ্ট। ফলে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে লাশ সংরক্ষণ করতে ব্যবহার করা হচ্ছে সনাতন পদ্ধতি। ফ্রিজের কাজ বরফ দিয়ে চালানো হচ্ছে।

শনিবার (২৮ মে) সরেজমিনে কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে দেখা যায়, লাশের জন্য অপেক্ষা করছেন বেশ কয়েকজন স্বজন।

সাঈদ আহমেদ উখিয়া থেকে এসেছেন। বোনের ছেলের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়। কিন্তু মর্গে ময়নাতদন্তের সময় শেষ হওয়ায় মরদেহ রেখেই বাসায় চলে যেতে হয়।

সাঈদ আহমেদ অভিযোগ করে বলেন, শুনেছি মর্গের ফ্রিজ ১০ দিন ধরে নষ্ট হয়ে পড়ে আছে। তাই আমার বোনের ছেলের লাশের জন্য মর্গের লোকদের ১৫০০ টাকা দেই বরফ দিয়ে লাশটা রাখতে।

কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে কাজ করা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মী জানান, মর্গে ফ্রিজ একটাই। ড্রয়ার আছে ১২টা। কোনো কোনো দিন অনেক লাশ মর্গে আসে। কষ্ট করে ফ্রিজে রাখতাম। কিন্তু ১০ দিন ধরে ফ্রিজটি নষ্ট হয়ে পড়ে আছে। বর্তমানে তিনটি লাশ আছে মর্গে। এদের তিনটিই প্রায় পঁচে গেছে।

কক্সবাজারের সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আশিকুর রহমান জানান, বিকল যন্ত্র ঠিক করতে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। ঢাকা থেকে প্রকৌশলী আসতে দেরি হচ্ছে। তাই ফ্রিজ ঠিক করতে বিলম্ব হচ্ছে।