জালাল আহমদ,ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি:
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের উপর ছাত্রলীগের সন্ত্রাসী হামলা কে বিরোধী মত দমনের বহিঃপ্রকাশ বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্রিয়াশীল আট ছাত্র সংগঠন। নিরাপদ ক্যাম্পাস সৃষ্টি এবং জটিল পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে অবিলম্বে পরিবেশ পরিষদের সভা আহবানের দাবি জানিয়েছেন তারা।
গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে আট ছাত্র সংগঠনের নেতৃবৃন্দ স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে বলা হয়, বিভিন্ন সময় ছাত্র সংগঠনগুলো ও আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উপর ক্ষমতাসীন ছাত্রলীগের হামলা তাদেরকে বারবার সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে শিক্ষার্থীদের সামনে প্রমাণ করেছে। সর্বশেষ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রদলের উপর তাদের নির্মম হামলা ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের জন্য এক ভীতিকর ও অনিরাপদ পরিবেশ সৃষ্টি করেছে। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস জুড়ে ছাত্রলীগের এই সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চলমান থাকলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ছাত্রলীগের পুতুল প্রশাসনের ভূমিকা পালন করছে।
অবিলম্বে পরিবেশ পরিষদের সভা আহবানের দাবি করে বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ পরিষদ অকার্যকর অবস্থায় পড়ে রয়েছে। ক্যাম্পাসে একটি সন্ত্রাসমুক্ত, নিরাপদ পরিবেশ তৈরির জন্য পরিবেশ পরিষদের কাজ করার কথা থাকলেও প্রশাসনের নির্লিপ্ততায় পরিষদটির অস্তিত্বের কথা শিক্ষার্থীরা ভুলতে বসেছে। অবিলম্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে পরিবেশ পরিষদের সভা আহবান করে ক্যাম্পাসে একটি নিরাপদ ও সন্ত্রাসমুক্ত পরিবেশ ফিরিয়ে আনতে হবে।

আট ছাত্র সংগঠনের পক্ষে তারা যারা বিবৃতি দিয়েছেন তারা হলেন:

১. নজির আমিন চৌধুরী জয়
সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত), বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন
২. ডা. জয়দীপ ভট্টাচার্য
সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত), সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট
৩. সাদেকুল ইসলাম সোহেল
সভাপতি, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রী
৪. আরিফ মঈনুদ্দিন
সভাপতি, গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিল
৫. মশিউর রহমান খান রিচার্ড
সভাপতি, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন
৬. সুনয়ন চাকমা
সভাপতি, বৃহত্তর পার্বত্য চট্টগ্রাম পাহাড়ি ছাত্র পরিষদ
৭. মিতু সরকার
সভাপতি, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন
৮. তাওফিকা প্রিয়া
সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত), বিপ্লবী ছাত্র-যুব আন্দোলন