অনলাইন ডেস্ক: বিক্ষোভকারীদের হাত থেকে বাঁচতে শ্রীলঙ্কার বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে পরিবারসহ সরকারি বাসভবন থেকে পালিয়ে সেনাবাহিনীর পাহারায় একটি নৌঘাঁটিতে আশ্রয় নিয়েছেন।

বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, মঙ্গলবার হাজার হাজার বিক্ষোভকারী প্রধানমন্ত্রীর ভবনের সদর দরজা ভেঙ্গে ফেলার পর তিনি সেখান থেকে পালিয়ে যান।

বিক্ষোভকারীরা রাজধানীর ‘টেম্পল ট্রিস’ বাসভবনের দিকে অগ্রসর হয়ে দুই তলা বিশিষ্ট ভবনটিতে হামলা চালানোর চেষ্টা করে। রাজাপাকসে সেখানে তার খুব কাছের পরিবারের সদস্যদের সাথে অবস্থান করছিলেন।

নিরাপত্তা বাহিনীর শীর্ষ এক কর্মকর্তা এএফপি’কে বলেন, ‘ভোরের আগে সেখানে অভিযান চালানোর পরে সৈন্যরা সাবেক এ প্রধানমন্ত্রী ও তার পরিবারকে নিরাপদে সরিয়ে নেন। এ সময় কমপক্ষে ১০টি পেট্রোল বোমা বাসভবন চত্বরে ছুঁড়ে মারা হয়।’

সহিংস বিক্ষোভের একদিন পর রাজাপাকসেকে অজ্ঞাত স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়। এ সহিংসতায় আইনপ্রণেতাসহ সাতজন নিহত ও প্রায় ২শ’ আহত হন।

ওই নিরাপত্তা কর্মকর্তা জানান, পুলিশ উপনিবেশ শাসনামলের এ ভবনের তিনটি প্রবেশ পথের সবক’টি থেকে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদনে গ্যাস নিক্ষেপ করেন এবং আকাশের দিকে সতর্কতামূলক গুলি ছুড়েন। এ ভবনকে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রতীক মনে করা হয়।

 
  
%d bloggers like this: