চকরিয়া সংবাদদাতা:

কক্সবাজারের চকরিয়ায় রাতে আধারে টমটম গাড়ীর গতিরোধ করে ডাকাতি ও মালামাল লুটপাটসহ মারধরে শাহাব উদ্দিন (৪৪) নামের এক যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছে।

গত সোমবার দিবাগত রাত প্রায় ২টার দিকে উপজেলার ডুলাহাজারাস্হ সোয়াজানিয়া-হাসিনাপাড়া রাস্তার মাথায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত শাহাব উদ্দিন (৪৪) ডুলাহাজারা ইউপির ৩নং ওয়ার্ডের চা-বাগান গ্রামের আব্দু সাত্তারের ছেলে।

শাহাব উদ্দিন জানান,আমি পেশায় একজন অটোরিকশা চালক। সারাদিন রিকশা চালিয়ে রাতে ছোট ছেলে-মেয়েদের কাপড়-চোপড় কিনতে চকরিয়া পৌরশহরে যায়।কেনাকাটা শেষে বাড়ী ফিরার জন্য মহাসড়কে দাড়াঁয়।গাড়ী না পেয়ে,হঠাৎ এক টমটম চালক মালুমঘাট বলে চিৎকার দিয়ে যাত্রী খোঁজছে। তখন আমি ডাক শুনে এই গাড়ীতে উঠি। এসময় গাড়ীতে বসা তিনজন যাত্রী বসে আছে। তখন আমিসহ চারজন যাত্রী হওয়ায় তারা চালককে গাড়ী চালাতে বলে। ভাড়াও বাড়িয়ে দিবে বলে প্রতিশ্রুতি দেন। পরে গাড়ীটি আসার পথে হাসিনাপাড়া রাস্তার মাথা পর্যন্ত আসলে ঐ তিন যাত্রীরা চালককে চাকু ধরে গতিরোধ করে। এসময় চালক ও আমার মুঠোফোন কেড়ে নেন। পরে টমটমটি নিয়ে যেতে চেষ্টা চালালে আমি বাধাঁ দিই এবং আমি গাড়ীর উপর বসে থাকি।ডাকাতেরা আমাকে গাড়ী থেকে নামাতে না পেরে হক স্টিক,হাতুড়িঁ দিয়ে আমাকে বেদড়ক মারধর করেছে। তখন আমি বলি,ভাইয়েরা আমাকে ছেড়ে দাও।কারণ আমিতো তোমাদেরকে চিনি।আমার কথা শুনে ডাকাতেরা থানায় ফোন করে খবর দেয় ডাকাত ধরেছে। পরে পুলিশ আসার পূর্বে তারা সরে যায়। তখন পুলিশ এসে আমাদেরকে উদ্ধার করে। পরে খবর নিয়ে স্হানীয় মেম্বার শওকত আলীকে ফোন দেন একর্মকর্তা। এরপর মেম্বার শওকত এসে আমাকে মালুমঘাট মেমোরিয়াল খ্রীষ্টান হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু ডাক্তারেরা আমার মাথায় আঘাত দেখে,আমাকে সদর হাসপাতালে রেফারে করেছেন।
টমটম চালক উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউপির ৯নং ওয়ার্ডের ছাইরাখালী এলাকার বাসিন্দা আবুল কাশেমের ছেলে মোঃ সিফাত বলে জেনেছি।
এছাড়া যারা গাড়ী ছিনতায়ে ব্যর্থ হয়ে আমাকে মারধর সহ ডাকাতি করেছেন,তাদের মধ্যে রয়েছেন-ডুলাহাজারা ইউপির ১নং ওয়ার্ডের সোয়াজানিয়ার বাসিন্দা মনজুর আলমের ছেলে গ্যাং লিডার আব্দুল জব্বার বাপ্পী, আব্দুল মজিদ,আকবর আহমদের ছেলে মনজুর আলম,মোঃ কালামের ছেলে মোঃ সাজ্জাদ, মৃত মনিরুজ্জামান ছেলে গিয়াস উদ্দিন(পাট্রি মেম্বার),জাবের আহমদের ছেলে নুরুল আলম,কাটাখালীর বাসিন্দা আজিজুল হকের ছেলে হাসিব।এখন বুঝতে পারছি টমটমের তিনযাত্রী ছিনতাইকারী ডাকাতের সদস্য।আমি এঘটনার বিষয়ে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিয়েছি।

এবিষয়ে ডুলাহাজারার ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার শওকত আলী বলেন, হঠাৎ রাত ২টার পরে এসআই ইস্রাফিল আমাকে ফোন করে ঘটনার বিষয় জানাল।পরে আমি গিয়ে আহত শাহাব উদ্দিনকে মালুমঘাট হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে দিই।তবে আহত ব্যক্তির অবস্হা গুরুতর দেখে সদর হাসপাতালে রেফার করে। আহত শাহাব উদ্দিন নাকি ডাকাতদেরকে চিনেছে। তাই তার পরিবার ঘটনার বিষয়ে থানায় মামলা করবেন বলে জানিয়েছেন।

 
  
%d bloggers like this: