আব্দুস সালাম,টেকনাফ(কক্সবাজার):
মানসিক রোগীদের কথা বিবেচনা করে এগিয়ে এলেন মানসিক রোগীদের তহবিল মারোত। ঈদের দিনেও উন্নত মানের খাবার ও নতুন কাপড় বিতরণ করেছে এ সংগঠনটি ।

ঈদুল ফিতর উপলক্ষে মানসিক রোগীদের মাঝে খাবার ও নতুন কাপড়ের কথা মাথায় রেখে এগিয়ে আসলেন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন মারোতের সদস্যরা।

ঈদ উপলক্ষে মঙ্গলবার (৩ মে) দুপুর সাড়ে ১২টায় টেকনাফ পৌর শহরের শাপলা চত্বর প্রাঙ্গণে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও মানসিক রোগীদের তহবিল (মারোত) এর মাধ্যমে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে মানসিক রোগিদের মাঝে সেমাই, উন্নত মানের খাবার ও নতুন কাপড় বিতরণ করা হয়েছে।
টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. কায়সার খসরু প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে মানসিক রোগীদের মাঝে খাবার ও বস্ত্র বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন মানসিক রোগিদের তহবিল (মারোত) এর প্রধান উপদেষ্টা প্রভাষক সন্তোষ কুমার শীল।
মানসিক রোগিদের তহবিল (মারোত) এর ফেরদাউস ইসলাম, মোঃ দিদারুল আলম(প্রবাসী),মোঃ ইসমাইল, সাইফুল ইসলাম,সাইফুল হাকিম,মোবারক হোসেন ভূঁইয়া,মো. হোসেন আমিটী,ডা. রূপন শর্মা,মোঃ মোশাররফ হোসেন, নুরুল আমিন আবুল কালাম প্রমূখ।

পরে টেকনাফের বিভিন্ন এলাকায় ছড়িয়ে-ছিটিয়ে থাকা শতাধিক মানসিক রোগীদের হাতে উন্নতমানের খাবার ও নতুন কাপড় পরিধান করা হয়।

এ প্রসঙ্গে মানসিক রোগিদের তহবিল (মারোত) এর প্রধান উপদেষ্টা প্রভাষক সন্তোষ কুমার শীল বলেন,প্রতিবছরের ন্যায় এবারও ঈদ উপলক্ষে মানসিক রোগীদের মাঝে উন্নত খাবার ও নতুন কাপড় বিরতণ করা হয়েছে। এ উদ্যোগটি খুবই প্রশংসনীয়।
তৎমধ্যে করোনাকালীন সময়েও এটি চলমান রয়েছিল।পাশাপাশি সংগঠনটি বিভিন্ন জাতীয় দিবসসহ বিভিন্ন সময় খাদ্য, বস্ত্র ও চিকিৎসাসহ বিভিন্ন ধরনের কাজ করে আসছেন।
এমনকি পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েপড়া মানসিক রোগীদের স্বজন-পরিবারের কাছে তুলেও দিচ্ছেন। সংগঠনটি এই কাজে সমাজের বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানান তিনি।

 
  
%d bloggers like this: