জিয়াউল হক জিয়া,চকরিয়াঃ

কক্সবাজারের চকরিয়ার ডুলাহাজারা সার্ফারি পার্কের সিংহশালা বেষ্টনিতে থাকা পুরুষ সিংহ সম্রাটের কামড়ে আহত সিংহী নদীর অবস্হা বেশ সংকটাপন্ন ছিল।
সেই থেকে একাধিক মেডিক্যাল বোর্ড গঠনে
বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে চলছিল অবিরাম চিকিৎসার কাজ।এতেই সেবাশুশ্রূষার পরও ১৩ বছরের স্ত্রী সিংহ নদী আর নেই।

শুক্রবার (২২ এপ্রিল) ভোর ছয়টার দিকে পার্কের বেষ্টনীতে সিংহী নদী মারা গেছে জানিয়েছেন পার্কের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক মোঃ মাজহারুল ইসলাম।

উল্লেখ্য,গত ১৯ ফেরুয়ারী বেষ্টনিতে পুরুষ সিংহ সম্রাট আর স্ত্রী সিংহ নদী খেলা করছিল।খেলায় আসক্ত হয়ে সম্রাট হঠাৎ নদীর গলায় বেশ কয়েকটি চোট লাগিয়ে দেয়।এরপর থেকে ক্ষতস্থান দিয়ে অনবরত পানি ঝরতে থাকে নদীর।নদীর অবস্হা সংকটাপন্ন দেখে চিকিৎসার জন্য দুটি মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়।পরে গঠিত মেডিক্যাল বোর্ডের বিশেষজ্ঞ একাধিক ডাক্তার দ্বারা চিকিৎসা চলছিল নদীর।তবু বাচাঁনো যায়নি নদীকে।

পার্কের ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক মোঃ মাজহারুল ইসলাম বলেন, ‘বেষ্টনীতে কামড়া-কামড়ি খেলতে গিয়ে পুরুষ সিংহ সম্রাট ও স্ত্রী সিংহ নদীর গলায় চোট লাগিয়ে দেয়।এতে নদীর গলার ক্ষতস্থান দিয়ে পানি ঝরছে।তাই নদীকে বাচাঁতে মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছিল।এরপরও শুক্রবার ভোর ৬টার দিকে মারা যায়।এবিষয়ে চকরিয়া থানায় একখানা সাধারণ ডায়েরী করা হয়।

 
  
%d bloggers like this: