দেলওয়ার হোছাইন, পেকুয়া :

সম্প্রতি অবৈধ অস্ত্র হাতে বিভিন্ন হুমকি ধামকি দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ভাইরাল হওয়া পেকুয়ার শীর্ষ সন্ত্রাসী হেলাল উদ্দিন লিটনকে আটক করেছে পেকুয়া থানা পুলিশ। গত সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩ টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সদর ইউনিয়নের বাঘগুজারা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয় বলে নিশ্চিত করেছে থান সূত্র। এসময় তার কাছ থেকে একটি দেশীয় তৈরি কাটা বন্দুক ও ১ রাউন্ড ১৩ বোর কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। আটক লিটন পেকুয়া সদর ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের পশ্চীম গোঁয়াখালী এলাকার হেলাল উদ্দিনের পুত্র।
থানা সূত্র জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে পেকুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ মোহাম্মদ আলীর নেতৃত্বে একদল পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রথমে বাঘগুজারা এলাকা থেকে সন্ত্রাসী লিটনকে আটক করে এবং পরে তার স্বীকারুক্তিমতে পেকুয়া সদর ইউনিয়নের নন্দীর পাড়া সাকিনে বাঘগুজারা ব্রিজ হইতে পেকুয়া চৌমুহনীগামী পাকা রাস্তায় নুইন্না—মুইন্না ব্রিজের দক্ষিণে গুরা পুলের পশ্চিম পার্শ্বে রাস্তার ঢালে ঝোপের আড়ালে লুকানো অবস্থায় একটি দেশীয় তৈরী এলজি ও এক রাউন্ড ১৩ বোরের কার্তুজ উদ্ধার করে।
পেকুয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মদ আলী জানান, “সন্ত্রাসী লিটন আসামী এলাকার একজন চিহ্নিত অস্ত্রধারী। ইতিপূর্বে অবৈধ অস্ত্রসহ তার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে সে পুলিশের নজরে আসে। আটককৃত আসামী লিটন অস্ত্র, মারামারি মামলা সহ একাধিক মামলার পলাতক আসামি। আসামীর বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা রুজু করে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।”

 
  
%d bloggers like this: