নিজস্ব প্রতিবেদক:
ক্যানসার, থ্যালাসেমিয়া, অন্য কোন জটিল রোগে আক্রান্তদের জন্য, অস্ত্রোপচার কিংবা সন্তান প্রসব বেদনায় ভুগতে থাকা মায়ের জন্য রক্ত দিয়ে পাশে থেকেছেন কক্সবাজার ব্লাড ডোনেটিং ক্লাব। গেল ৫ বছরে এমন অসহায় রোগীদের প্রায় ১ লাখ ১৩ হাজার ব্যাগ রক্তদান করেছেন এ সংগঠনের সদস্য ও ডোনাররা। এছাড়াও লকাউনকালীন সময়ে অসহায় সুবিধাবঞ্চিতদের মাঝে খাবার সামগ্রী উপহার, লকডাউনকালীন নিন্মবিত্ত পরিবারকে আর্থিক সহায়তাসহ কক্সবাজারে প্রথম রক্তদানভিত্তিক অ্যাপস সেবা চালু ও রক্তদানে উৎসাহ দিতে নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে সংগঠনটি। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য নিরাপদ রক্তদান, উপজেলাভিত্তিক ভ্রাম্যমাণ ফ্রি ব্লাড গ্রুপিং ক্যাম্পেইন হ্যালো রক্তদাতা (কল সার্ভিস), হ্যালো সিবিডিসি (এ্যাম্বুলেন্স সেবা) রক্তদানে সচেতনতামূলক দেওয়াল লিখন ও নাটিক, থ্যালাসেমিয়া রোগীদের ন্যায়সঙ্গত অধিকার অর্জনে বাধা দূরীকরণ’ কর্মসূচি বাস্তবায়ন।
শুক্রবার (১৫ এপ্রিল) সন্ধ্যায় শহরের বাসটার্মিনাল এলাকায় এক কনফারেন্স রুমে ৫ম বর্ষপূর্তি ও ইফতার পার্টিতে এসব তথ্য জানান সংগঠনটির অ্যাডমিনরা। এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন- কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান।
এসময় তিনি বলেন, মানুষকে ভালোবেসে যত কাজ করা যায়, তার অন্যতম হলো রক্তদান। অন্যকে রক্ত দেওয়ার মাধ্যমে যেমন তার জীবন বাঁচানো যায়, তেমনি রক্তদান করলে রক্তদাতার নিজের শরীরেরও উপকার হয়। এছাড়া অসহায় মানুষের পাশে থাকা সওয়াবের কাজ।
কক্সবাজার ব্লাড ডোনেটিং ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ আব্দুল হালিমের সভাপতিত্বে ও শামসুল আলম শ্রাবণের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন, কক্সবাজার সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. মুহাম্মদ আশিকুর রহমান, আইনজীবি আবু হেনা মোস্তফা কামাল, সদর হাসপাতাল ব্লাড ব্যাংকের ইনচার্জ আবু তাহের টিপু ও সংগঠনটির বিভিন্ন শ্রেণীর সদস্যবৃন্দ।

 
  
%d bloggers like this: