সিবিএন:
রাজনৈতিক দলে ৩৩ শতাংশ কোটার দাবিতে সোচ্চার হয়ে উঠেছে কক্সবাজারের নারী নেত্রীরা। তারা দাবি করেছেন, নির্বাচন কমিশনের নির্দেশনা মতে, সরকারি দল আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ সব রাজনৈতিক দলের কমিটিতে ৩৩শতাংশ পদ নারীদের দিতে হবে।
১৪ মার্চ কক্সবাজারে আন্তর্জাতিক গবেষণা সংস্থা ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল কর্তৃক কলাতলীর হোটেল হিল টাউযারে অনুষ্ঠিত আন্তর্জাতিক নারী দিবসের আলোচনা সভায় এই দাবি জানানো হয়েছে।
এতে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক এড. তাপস রক্ষিত, জেলা বিএনপির দপ্তর সম্পাদক ইউছুপ বদরী, জেলা শ্রমিক দলের সভাপতি রফিকুল ইসলাম, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা ভাইসচেয়ারম্যান হামিদা তাহের, জেলা যুব মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আয়েশা সিরাজ, জেলা মহিলা দলেরর সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াছমিন।
উক্ত আলোচনা সভায় অংশগ্রহণকারী আওয়ামী লীগ ও বিএনপি নেত্রীরা অভিযোগ করেন, কক্সবাজারে প্রধান রাজনৈনৈতিক দলগুলোতে ৫শতাংশও নারীর পদায়ন নেই। যে কয়েকটি নামমাত্র পদায়ন রয়েছে তাদেরও অবমূল্যায়ন করা হয়। সভা-সমাবেশসহ কোনো প্রোগ্রামে নারী নেত্রীদের ঠিকমতো বসতেও দেয়া হয় না। মঞ্চের সমানের সারিতে বসলে উঠিয়ে দিয়ে পাঠিয়ে দেয়া হয় পিছনের সারিতে। এটি খুব অপমানজনক বলে মনে করেন নারী নেত্রীরা।
৩৩ শতাংশ পদায়ন এবং সঠিক মূল্যায়নের দাবিতে এবার একাট্টা হয়েছেন কক্সবাজারের জেলা থেকে পর্যন্ত বিভিন্ন কমিটির নারী নেত্রীরা। তারা এর প্রেক্ষিতে দাবি আদায়ে শিগগিরই মাঠে নামার ঘোষণা দিয়েছেন তারা। সর্বদলীয় প্লাটফর্ম গঠন করে জেলা পর্যায়ে মানববন্ধন, সমাবেশ এবং দলের প্রধান বরাবর স্মারকলিপি প্রদানসহ নানা কর্মসূচীর ডাক দেবেন।
এই আলোচনায় সভায় অংশ নেয়া পুরুষ নেতৃবৃন্দও নারীর এই দাবির পক্ষে সমর্থন দেন।
সবাই বলেছেন, নারীর ক্ষমতায়নের শুধু নারী নয়; পুরুষদেরও আন্তরিক হতে। নারীর অধিকার ছেড়ে দিতে হবে।
উক্ত আলোচনা সভা পরিচালনায় ছিলেন ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল এর চট্টগ্রাম বিভাগীয় ম্যানেজার সদরুল আমিন ও কো-অর্ডিনেটর সাদরুল সুমন।

 
  
%d bloggers like this: