মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

এসএসসি ১৯৮৪ ব্যাচ, কক্সবাজার এসোসিয়েশন এর সদস্য সাইমুল আলম চৌধুরী ঢাকাস্থ রামু সমিতির সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় এসোসিয়েশন এর সকল সদস্য তাঁকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। এসএসসি ১৯৮৪ ব্যাচ, কক্সবাজার এসোসিয়েশন এর সদস্যরা সাইমুল আলম চৌধুরী সহ নতুন কমিটির যোগ্য ও বলিষ্ঠ নেতৃত্বে সমিতির কার্যক্রম আরো গতিশীল হবে উল্লেখ করে এ কমিটির মাধ্যমে ঢাকাস্থ রামু সমিতির সদস্যদের আরো কল্যান ও স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে কাজ করতে এগিয়ে যাবেন বলে দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এসএসসি ১৯৮৪ ব্যাচ, এসোসিয়েশন এর সদস্যরা এক অভিনন্দনবার্তায় বলেন, এ্যাম্বেসেডর হিসাবে পুরো কক্সবাজার জেলাকে ঢাকায় ইতিবাচকভাবে তুলে ধরে কক্সবাজারকে আরো অধিকতর মর্যাদার আসনে সমুজ্জ্বল করতে ঢাকাস্থ রামু সন্তানেরা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবেন।

সাইমুল আলম চৌধুরীর সংক্ষিপ্ত জীবনী :

সাইমুল আলম চৌধুরী রামু উপজেলার জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের উত্তর মিঠাছড়ি গ্রামের মরহুম নজিবুল আলম চৌধুরী’র জ্যেষ্ঠ সন্তান। ৫ ভাই ২ বোনের মধ্যে সাইমুল আলম চৌধুরী সবার বড়।

কক্সবাজারের ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীট কক্সবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৯৮৪ সালে বাণিজ্য শাখা নিয়ে প্রথম বিভাগে এসএসসি পাস করেন মেধাবী সাইমুল আলম চৌধুরী। চট্টগ্রাম সরকারি বাণিজ্য কলেজ থেকে এইচএসসি ও বিকম পাস করার পর ১৯৯০ সালে চাকরিতে যোগ দেন।অদম্য প্রাণশক্তি সম্পন্ন সাইমুল আলম চৌধুরী চাকরির পাশাপাশি ঢাকা কলেজ থেকে এম.কম (ব্যবস্থাপনা) এবং পরে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে এমবিএ (ফিন্যান্স) ডিগ্রি অর্জন করেন। কর্মপাগল সাইমুল আলম চৌধুরী প্রফেশনাল পড়াশোনার জন্য আইসিএমএ তে ভর্তি হয়ে লেভেল-২ কমপ্লিট করেন কৃতিত্বের সাথে।

জীবনযুদ্ধে হার নামানা সাইমুল আলম চৌধুরী চাকুরী জীবনে ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড, সাত্তার টেক্সটাইল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, সেইভ পাওয়ার ম্যানুফ্যাকচারিং ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেড, নাসির গ্লাস ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড, আরজেএম কর্পোরেশন এবং বর্তমানে সিনট্যাক্স পলিমার ইন্ডাস্ট্রি লিমিটেড এ এজিএম (একাউন্টস অন্ড ফিনান্স) হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।
ব্যক্তিগত জীবনে তিনি এক পুত্র এবং ২ কন্যা সন্তানের গর্বিত জনক।

সাইমুল আলম চৌধুরী শিক্ষা, ধর্মীয়, সামাজিক সহ বিভিন্ন কল্যানকর প্রতিষ্ঠানের সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত। সামাজিক কর্মকান্ডের অংশ হিসাবে সমাজকর্মী সাইমুল আলম চৌধুরী ২০০০ সালে ঢাকাস্থ রামু সমিতির প্রতিষ্ঠাকালীন একজন দায়িত্বশীল সদস্য হিসাবে এ প্রতিষ্ঠানের সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িয়ে পড়েন। সাইমুল আলম চৌধুরী সর্বশেষ এ প্রতিষ্ঠানের ২০২২-২০২৩ মেয়াদে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

এদিকে, ঢাকাস্থ রামু সমিতি’র সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় সাইমুল আলম চৌধুরী মহান আল্লাহর কাছে শোকরিয়া জ্ঞাপন করে সমিতির সকল সদস্যের প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি ঢাকাস্থ রামু সমিতি যাতে একটি মডেল প্রতিষ্ঠান হিসাবে গড়ে তুলতে পারেন, এজন্য তিনি সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন। ঢাকাস্থ রামুবাসীদের সৌহার্দ্য, ঐক্য ও পরস্পর বন্ধন সুদৃঢ় করতে নিরন্তর কাজ করে যাওয়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন- অসাধারণ মনোবলসম্পন্ন সাইমুল আলম চৌধুরী।

গত ৪ ফেব্রুয়ারী ঢাকাস্থ রামু সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় সরকারের সাবেক সচিব মাফরুহা সুলতানা-কে সভাপতি এবং সাইমুল আলম চৌধুরী-কে সাধারণ সম্পাদক করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট সমিতির নির্বাহী পরিষদ গঠন করা হয়। আজীবন সদস্যদের উপস্থিতিতে রাজধানীর বনানিস্থ কিউব হোল্ডিং এর ভবনে অনুষ্ঠিত এই সভায় ২০২২-২০২৩ মেয়াদে নির্বাহী পরিষদের কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটি গঠনে রামু উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান এড. আবুল মনসুর চৌধুরী প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং গ্রামীণ ব্যাংকের সাবেক জেনারেল ম্যানেজার জান্নাতুল কাউনাইন ও সুপ্রিম কোর্টের ডেপুটি এর্টনি জেনারেল ব্যারিস্টার নওরোজ মোহাম্মদ রাসেল চৌধুরী সদস্য হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।

সাধারণ সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর শিরিন আকতার। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্যারিস্টার মিজান সাইদ। এছাড়া বক্তব্য রাখেন, সাবেক সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার সহিদুজ্জামান, প্রশান্ত ভূষণ বড়ুয়া, সুজন শর্মা প্রমুখ। ভার্চুয়ালি বক্তব্য রাখেন অধ্যাপক দিলওয়ার চৌধুরী, আনসার কমান্ডার আজিম উদ্দিন, মিনু আরা বেগম। শুভেচ্ছা বার্তা জানান-বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক মুহম্মদ নূরুল হুদা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন, আজিজুল ইসলাম।

রামু সমিতির নব নির্বাচিত নির্বাহী পরিষদ নিম্নরূপ :

সভাপতি : মাফরুহা সুলতানা (সাবেক সচিব), সহ সভাপতি : সন্তোষ শর্মা, সহ সভাপতি : মোমিনুর রশিদ আমিন (সচিব), সহ সভাপতি : রবীন্দ্র শ্রী বড়ুয়া, সহ সভাপতি : প্রশান্ত ভূষণ বড়ুয়া, সহ সভাপতি : সুজন শর্মা, সাধারণ সম্পাদক : সাইমুল আলম চৌধুরী, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক : আজিজুল ইসলাম ও এডভোকেট রাবেয়া হক, সাংগঠনিক সম্পাদক : মোহিবুল মোক্তাদির তানিম, অর্থ সম্পাদক : মিনু আরা বেগম
প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক : বিজন শর্মা, সহ প্রচার প্রকাশনা সম্পাদক : বিপ্রজিৎ কুমার শর্মা
দপ্তর সম্পাদক : এম. খোরশেদ আলম, শিক্ষা ও মানব সম্পদ উন্নয়ন সম্পাদক : প্রকৌশলী শামসুল আলম, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক সম্পাদক : সুপ্ত ভূষণ বড়ুয়া, ক্রীড়া সম্পাদক : সাজেদুল আলম মুরাদ, তথ্য প্রযুক্তি ও যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক : লিটন কুমার শর্মা, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক : মোয়াজ্জেম হোসেন, সংস্কৃতি সম্পাদক : নিউটন শর্মা
সমাজ কল্যাণ সম্পাদক : ছৈয়দ নুর, অনুষ্ঠান বিষয়ক সম্পাদক: ছোটন শর্মা, সহ অনুষ্ঠান বিষয়ক সম্পাদক : আখতার হোসেন, আইন বিষয়ক সম্পাদক : এড. সাদ আল আলম, নারী ও শিশু বিষয়ক সম্পাদক : পারভীন আখতার, নির্বাহী সদস্য : নুর মোহাম্মদ, এ. জি. এম কামরুল ইসলাম, আতিক উল্লাহ, মোহাম্মদ আবদুল হাকিম, তাপস শর্মা, জাবেদুর রহমান।

 
  
%d bloggers like this: