সাতকানিয়া প্রতিনিধি:
সাতকানিয়া উপজেলার কাঞ্চনা ইউনিয়নের সরকার দলীয় প্রার্থী কর্তৃক স্বতন্ত্র প্রার্থীকে প্রচারনা ও পোষ্টার লাগাতে বাধা প্রদানের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাছাড়া ক্ষমতাসীন দলের নৌকা প্রতিকের প্রার্থী কর্তৃক স্বতন্ত্র প্রার্থীকে হামলার অভিযোগও করেছেন স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মঈন উদ্দীন হাসান। এ বিষয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী শনিবার (২৯ জানুয়ারি) নিজ ইউনিয়নের রিটার্নিং অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। যার অনুলিপি জেলা প্রশাসক, জেলা নির্বাচন অফিসার, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সাতকানিয়া থানা অফিসার ইনচার্জের নিকট প্রেরন করেন।
অভিযোগের সূত্রে জানা যায়, গত ২৩ জানুয়ারী প্রতীক বরাদ্দের পর নির্বাচনী এলাকায় প্রচারনায় নামলে কাঞ্চনা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও নৌকা প্রতিকের প্রার্থী রমজান আলীর ইন্দনে তার মেঝ ও ছোট ছেলের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী বাহিনী দেশীয় অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে প্রচারনা ও পোষ্টার লাগাতে বাধা প্রদান করে এবং ইউনিয়নের বিভিন্ন স্থানে টাংগানো পোষ্টার ছিঁড়ে ফেলে। তাছাড়া রাতে স্বতন্ত্র প্রার্থীর বসত ঘরে গিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি ছোঁড়ে এবং প্রাণ নাশের হুমকি দেয়। অপরদিকে গত ১৫ জানুয়ারী মনোনয়ন যাচাই-বাছাইয়ের শেষ দিনে উপজেলা পরিষদের ভেতরে রমজান আলী ও সন্ত্রাসী বাহিনী স্বতন্ত্র প্রার্থীর উপর হামলা চালান। এ সময় স্বতন্ত্র প্রার্থী মঈন উদ্দীন হাসানসহ বেশ কয়েকজন আহত হন। অভিযোগের সূত্রে আরো জানা যায়, গত কয়েকদিন ধরে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী রমজান আলী ক্রমাগত প্রাণ নাশের হুমকি ও বিভিন্ন মামলায় জড়িয়ে হয়রানির ভয়ভীতি প্রদর্শন করছেন। এ ব্যাপারে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মঈন উদ্দীন হাসান নিরাপত্তা ও হয়রানি থেকে নিষ্কৃতি চেয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন। তার দায়ের করা রিট (রিট পিটিশন নং-৭৮৩ অব ২০২২) আবেদনের প্রেক্ষিতে মহামান্য সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট ডিভিশন উপজেলার কাঞ্চনা ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মঈন উদ্দীন হাসানকে মিথ্যা মামলাসহ সকল ধরনের হয়রানি থেকে বিরত থাকার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনসহ সকলকে নির্দেশ প্রদান করে এক আদেশ জারী করেন।

 
  
%d bloggers like this: