ফারুক আহমদ , উখিয়া :

কক্সবাজারের উখিয়ায় সঙ্ঘবদ্ধ বালু থেকো সিন্ডিকেটের চলছে ড্রেজার মেশিন রাজত্ব। সরকারি বনভূমি , খাল ও ছরায় অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করে যাচ্ছে।
উপজেলা প্রশাসন ও বন বিভাগ পৃথক অভিযান চালিয়ে গেলেও থামানো যাচ্ছে না বালুখেকো সিন্ডিকেটের অপতৎপরতা।
গত কাল বুধবার ১০ জানুয়ারী সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাজ উদ্দিন অভিযান চালিয়ে ২ টি ড্রেজার মেশিন সহ দুইজন আটক করেন।
পুলিশের সহযোগিতায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাজউদ্দীন উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় এই অভিযান পরিচালনা করেন ।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন আহমদের নিজস্ব ওয়ালে উল্লেখ করেছেন , নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাজ উদ্দিন ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে আটক ১ ব্যক্তি কে এক মাসের কারাদণ্ড ও অপর একজন কে অর্থ দন্ড জরিমানা করেছেন । উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্যোশাল মিডিয়ায় লিখেছেন বনজ সম্পদ ও পরিবেশ রক্ষায় উপজেলা প্রশাসনের এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।
সরজমিন পরিদর্শনে দেখা গেছে রাজা পালংয়ের দোছড়ি, হরিণ মারা তুতুরবিল , থাইংখালী , মোছার খোলা , তৈল খোলা, রহমতের বিল, ফারির বিল সহ বিভিন্ন বন বিভাগের সংরক্ষিত এলাকায় বালু খেকো সিন্ডিকেট ড্রেজার মেশিন বসিয়ে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলন করছে।
গতকাল অভিযান পরিচালনা কারী ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তাজ উদ্দিন এসি ল্যান্ড উখিয়া নামক পেইজে লিখেছেন এই লোভের শেষ কোথায়? এই অপরিণামদর্শিতা’র ফলাফল কী?
তিনি আরও উল্লেখ করেন, পালংখালী ইউনিয়নে অবৈধ ড্রেজার মেশিন দিয়ে বন ও পরিবেশের ক্ষতি করে বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে উখিয়া থানা পুলিশের সহযোগিতায় অভিযান পরিচালিত হয়েছে। অভিযানকালে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে একজনকে একমাসের কারাদণ্ড এবং অপর একজনকে অর্থদণ্ড করা হয়েছে।
উখিয়া রেঞ্জ কর্মকর্তা গাজী শফিউল আলম জানান , উপজেলা প্রশাসনের সহায়তায় বন বিভাগ অভিযান অব্যাহত রেখেছেন। ইতিমধ্যে বহু ড্রেজার মেশিন জব্দ সহ অবৈধ বালুমহল লাল পতাকা উড়িয়ে দিয়ে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে । তিনি আরও বলেন দিবা রাত্রী অভিযান চালিয়ে মাটি ভর্তি সহ কয়েকটি ডাম্পার আটক করা হয় । মাটি বালু ও বন খেকো সিন্ডিকেট সদস্যদের বিরুদ্ধে অসংখ্য বিভাগীয় মামলা দায়ের করা হয়েছে ।