হ্যাপী করিম,মহেশখালী:
কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলায় মা ও শিশুর যত্ন, পরিপূরক খাদ্য প্রস্তুতি ও অপুষ্টি দূরীকরণে কার্যরত এস এ আর পি ভি কর্তৃক আয়োজিত পুষ্টিকর খাদ্য প্রস্তুতি ও রান্না প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়। পৌরসভার পুটিবিলা গ্রামে শিশু এবং গর্ভবতী ও দুগ্ধদানকারী মায়েদের সঠিকভাবে পরিপূরক খাবার প্রস্তুত ও পুষ্টিকর রান্না তৈরীর কৌশল অনুষ্ঠিত হয়। যেখানে ৬ মাস থেকে পাঁচ বছর বয়সী শিশুদের যত্ন, পরিপূরক খাবার তৈরি, গর্ভাবস্থায় ও দুগ্ধদানের সময়ে মায়েদের অতিরিক্ত খাবার, শিশুকে সঠিকভাবে দুগ্ধদান, পুষ্টিকর খাদ্য প্রস্তুতি এবং পরিপূরক ও সুষম খাদ্য সম্পর্কে ধারনা প্রদান করা হয়। সবশেষে পুষ্টিকর খাদ্য পরিবেশন ও বিতরণ করা হয়।

পুষ্টিকর খাদ্য প্রস্তুতি ও রান্না প্রদর্শনী অনুষ্ঠানে বক্তব্যে রাখেন.. উপজেলা নির্বাহি অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ সাইফুল ইসলাম বলেন, এস এ আর পি ভি শুধু অপুষ্টি দূরীকরণে নয় সরকারের বিভিন্ন দিবস ও গুরুত্বপূর্ণ কাজেও সহযোগিতা করে আসছে। তাদের এ ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে এমনটাই আশা রাখি। এসময় শিশুদের যত্ন, পরিপূরক খাবার তৈরি, গর্ভাবস্থায় সুষম খাদ্য সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্যে রাখেন…উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মু. মাহফুজুল হক বলেন, একটা সময় মহেশখালীর প্রায় প্রতিটি ঘরে একটি করে অপুষ্টিতে আক্রান্ত শিশু ছিল যারা শিশুর প্রথম টিকা মায়ের শালদুধ কলার পাতায় ভাসিয়ে দিত, এখন এস এ আর পিভি ও ডব্লিউ এফ পি এর সহযোগিতায় অপুষ্টির হার অনেকাংশে কমে গেছে। এসআরপিভি তাদের পুষ্টিসেবা অব্যাহত রেখে মহেশখালীতে অপুষ্টি দূরীকরণে তাদের অগ্রগতি সুদুরপ্রসারি করবে এটাই আমার কামনা।

এ উক্ত অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন মহেশখালী প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ আবুল বশর পারভেজ, ইউনিসেফের উপজেলা নিউট্রিশন সুপারভাইজার মোঃ মেহেদী হাসান, তপন কুমার শর্মা, মোঃ রফিকুল ইসলাম, এসএআরপিভি’র টেকনিক্যাল কো-অর্ডিনেটর- নিউট্রিশন কামরুন্নাহার সীমা, ডাটা ম্যানেজমেন্ট এন্ড রিপোর্টিং অফিসার সানজানা হাসান,ইউনিয়ন নিউট্রিশন সুপারভাইজার মনিকা রায়,মোঃ রুমান মিয়া এবং অত্র এলাকার পাঁচ বছরের কম বয়সি শিশু এবং গর্ভবতী ও দুগ্ধদানকারী মা ।সম্পূর্ণ অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন এসএআরপিভি’র মোঃ আনোয়ার আলম।

উল্লেখ্য, ১৯৮৯ সালে প্রতিষ্ঠিত সোসিয়াল অ্যাসিসট্যান্স এন্ড রিহ্যাবিলিটেশন ফর দ্যি ফিজিক্যালি ভালনারেবল (এস এ আর পি ভি) বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি (ডব্লিউ এফ পি) সহযোগিতায় ২০১৪ সাল থেকে অপুষ্টিতে আক্রান্ত শিশু এবং গর্ভবতী ও দুগ্ধদানকারী মায়েদের অপুষ্টি দূরীকরণে বিভিন্ন স্বাস্থ্য সেবা ও সঠিকভাবে শিশুদের যত্ন ও পুষ্টিকর রান্না প্রস্তুতির পরামর্শ বিষয়ক সেবা কার্যক্রম মহেশখালী উপজেলায় চালিয়ে আসছে।