সিবিএন ডেস্ক:
রোহিঙ্গা চক্র কর্তৃক রামু থেকে অপহৃত চার স্কুলছাত্রের মধ্যে তিনজনকে উদ্ধার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় টেকনাফের শালবাগান পাহাড়ি এলাকা থেকে তাদের উদ্ধার করা হয়। ওই এলাকায় এখনও অভিযান চলছে।

১৬ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) এসপি তারিকুল ইসলাম তিন স্কুলছাত্রকে উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

উদ্ধার ছাত্ররা হচ্ছে- রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের পেচারদ্বীপের মংলাপাড়া এলাকার মোহাম্মদ কায়সার, মিজানুর রহমান নয়ন, জাহিদুল ইসলাম। তবে মিজানুর রহমান নামে আরও একজন নিখোঁজ রয়েছে।

র‍্যাব-১৫-এর অধিনায়ক খায়রুল আলম জানান, শালবন পাহাড় থেকে মোট তিনজনকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ সময় অপহরণকারী দলের একজনকেও আটক করেছে র‍্যাব। তাদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী বাকি একজনকে উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।

এর আগে গত মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) সকাল ১০টার দিকে রোহিঙ্গা জাহাঙ্গীর ও ইব্রাহীম চার স্কুলছাত্রকে সেন্ট মার্টিন বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে টেকনাফের হোয়াইক্যং এলাকায় নিয়ে যান। সেখানে বেড়াতে যাওয়ার পর থেকে ওই চারজনের খোঁজ মিলছিল না। তারা নিখোঁজের পরদিন বুধবার স্বজনদের কাছে বিভিন্ন অপরিচিত নম্বর থেকে ফোন করে মুক্তিপণ হিসেবে ২০ লাখ টাকা দাবি করা হয়। অন্যথায় তাদের মরদেহ ফেরত দেওয়া হবে বলেও হুমকি দেয় তারা।