আব্দুস সালাম,টেকনাফ(কক্সবাজার):

কক্সবাজারের টেকনাফের শালবাগান রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে মানব পাচারকারী চক্রের ৪জন সদস্য আটক করা হয়েছে।এসময় ৫জন কিশোরী ভিকটিমকে উদ্ধার করেছে আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়ন (এপিবিএন) এর সদস্যরা।

আটককৃরা হলেন-টেকনাফের শালবাগান ক্যাম্প-২৬ ব্লক-ডি এর মৃত আমিনের ছেলে মো. সালামত উল্লাহ(৪০) একই ক্যাম্পের মৃত শামসু আলমের ছেলে নজিমুল্লাহ(২০),সৈয়দ কাসিমের ছেলে ওসিউর রহমান(৩৫)উমর মিয়ার ছেলে নুর আলম(৩০)

শনিবার(৬ আগষ্ট) সকাল সাড়ে ৯টার টার দিকে টেকনাফ হ্নীলা ইউনিয়নের শালবাগান ক্যাম্পের ডি-ব্লকের রোহিঙ্গা ওসিউর রহমান(৩৫) এর বসতঘর থেকে ভিকটিম কিশোরীদের উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধারকৃত ভিকটিমরা হলেন-উখিয়া উপজেলার ৮ নম্বর ক্যাম্পের সামশু আলমের মেয়ে উম্মে ছলিমা(১৪),১৯ নম্বর ক্যাম্পের নুর সালামের মেয়ে ফাতেমা(১৪) একই ক্যাম্পের অলির মেয়ে দীল নুয়াছ(১৬),১৬ নম্বর ক্যাম্পের নুর আলমের মেয়ে তছলিমা (১৭) ও ৭ নম্বর ক্যাম্পের ইসমাইলের মেয়ে রাজু বেগম(১৬)।

নারী পাচারকারী আটক

১৬ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মোহাম্মদ হাসান বারী নূর জানান,শনিবার (৬আগষ্ট) সকালে সাড়ে ৯টার দিকে সংবাদ আসে মালয়েশিয়া পাচারের উদ্দেশ্য একটি মানব পাচারকারী চক্র শালবাগান ক্যাম্প-২৬ এর ডি-ব্লকের রোহিঙ্গা ওসিউর রহমানের বসতঘরে ৫জন নারীকে আটকে রাখে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে শালবাগান এপিবিএন পুলিশের অফিসার ও ফোর্সসহ বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে রোহিঙ্গা ওসিউর রহমানের বসতঘর থেকে ভিকটিমদেরকে
উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।

অধিনায়ক আরও জানান,আটককৃত মানব পাচারকারী চক্রের বিরুদ্ধে টেকনাফ মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 
  
%d bloggers like this: