সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:
পর্যটন রাজধানী ককসবাজারের গ্রেইস কক্স হোটেলের বলরুমে জুনিয়র চেম্বার (জেসিআই) কক্সবাজার চ্যাপ্টারের দ্বিতীয় সাধারণ সভা জুনিয়র চেম্বার কক্সবাজার এর প্রেসিডেন্ট আবু ফারহান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়েছে গত ৫ আগস্ট। এতে উপস্থিত ছিলেন জেসিআই বাংলাদেশ এর ন্যাশনাল কমিটি চেয়ার মাহিরা হাবিব।

শুরুতেই সেক্রেটারি জেনারেল মোনেম সালেহ সেজান কোরাম পূর্ণ করে গতবারের সাধারণ সভায় প্রস্তাবিত এজেন্ডা সমূহের সফল বাস্তবায়নের প্রেক্ষিতে সর্ব সম্মতিক্রমে পাশ হয়। একই সাথে ট্রেজারার ফয়সাল সিদ্দীকি অদ্যাবধি আয়—ব্যয় সবিস্তারে উত্থাপন করেন এবং সদস্যদের নানা খুঁটিনাটি প্রশ্নের উপযুক্ত বর্ণনা দেন।

সভায় লোকাল প্রেসিডেন্ট আবু ফারহান জেসিআই কক্সবাজার এর উপর একটি সবিস্তার পটভূমি এবং চলমান প্রজেক্ট ও ইভেন্ট সমূহের উপর উপস্থাপন করেন। সভায় উপস্থিত সদস্যগণ এবং উপস্থিত ন্যাশনাল অতিথি স্বল্প সময়ে ককসবাজার চ্যাপ্টারের কর্মকান্ডে ভূয়সী প্রশংসা করেন।

উল্লেখ্য জুনিয়র চেম্বার কক্সবাজার প্রথম বছরেই “ইচ্ছেপূরণ” ও “গ্রীন কক্সবাজার” নামের দুটি প্রজেক্ট সফলতার সাথে সম্পন্ন করে।

এজেন্ডা মোতাবেক বর্তমান প্রকল্প এবং ভবিষ্যতের ইভেন্ট সমূহ নিয়ে বিস্তারিত তথ্য উত্থাপিত হয় সকলের মতামতের ভিত্তিতে।

সভায় আবেদিন গ্যারেজের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করেন আবেদিন গ্যারেজের মালিক আবেদিন সাদী এবং জেসিআই প্রেসিডেন্ট আবু ফারহান। এই চুক্তির পরে বাংলাদেশের সকল জেসিআই সদস্য আবেদিন গ্যারেজে সার্ভিস চার্জের উপর ১০% ডিসকাউন্ট পাবেন।

সাধারণ সভা শেষে ন্যাশনাল থেকে আগত প্রশিক্ষক মাহিরা হাবিব জেসিআই এক্সপ্লোর এবং জেসিআই ডিসকভার বিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রদান করেন। ৪ ঘন্টা ব্যাপি এই প্রশিক্ষণের মাঝে কক্সবাজার পর্যটন শিল্পের উত্তরোত্তর উৎকর্ষ সাধনে নানা মতামত ও প্রজেক্ট নিয়ে বিস্তারিত কথা বলেন।

সভা ও প্রশিক্ষণ শেষে ডিনারের মাধ্যেমে সভার সমাপ্তি হয়।

 
  
%d bloggers like this: