আবুল কালাম, চট্টগ্রাম:

চট্টগ্রামে বিদ্যুৎ সাশ্রয় বিষয়ে সরকারের ঘোসনা মতে বিভিন্ন ব্যবসায়ীসহ সংশ্লিষ্টদের নিয়ে বৈঠকে করে পত্র দিয়ে জানিয়ে দেওয়ার পরেও সরকারি নির্দেশনা অমান্য করায় চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান এর নেতৃত্বে নগরীর বিভিন্ন স্থানে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ী অভিযান পরিচালনা করা হয়।

সোমবার (১ আগস্ট) চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে পাঁচ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নগরের পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় এ অভিযান পরিচালনা করেন।

জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাসুমা জান্নাত নিউ মার্কেট এলাকা ও রিয়াজুদ্দিন বাজারে অভিযান চালিয়ে ‘পরিস্থান’ নামের একটি প্রতিষ্ঠানকে ১০ হাজার টাকা, কিং অব পরিস্থানকে ৫ হাজার টাকা, আব্বাস এন্ড ব্রাদার্স কে ৩ হাজার টাকা আলমাছ বেবি জোন ৮ হাজার টাকা ও টেইলার্সকে ১ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।

অন্যদিকে, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিসান বিন মাজেদ ফুড মার্কেট, সেইলর্স সহ ৫ টি প্রতিষ্ঠান থেকে ১২ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উমর ফারুক নগরের জিইসি মোড় ও কাজির দেউড়ি এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে স্যামসাং গ্যালাক্সী, স্পোটস কর্নার, জাহান স্পোর্টসকে বিদ্যুৎ আইন ১৯১০ এর ৪০ ধারার ও ভিভো , টাইম প্লাস, বিজন টেলিকম বিদ্যুৎ আইন ২০১৮ এর ৪০ ধারায় ফিটনেস ফাস্ট, অভি স্পোর্টস, টেস্টি ট্রিটকে মোট ৯টি মামলায় ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এছাড়াও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আতিকুর রহমান চকবাজার ও তানভীর হোসেন আগ্রাবাদ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন।জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান বলেন বাংলানিউজকে বলেন, বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে সরকারী নির্দেশনা বাস্তবায়নের লক্ষে আমরা ব্যবসায়ীসহ সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে মিটিং করেছি। পাশাপাশি অফিসিয়ালি পত্র দিয়েছি যাতে সকলে বিদ্যুৎ সাশ্রয়ে সরকারের নির্দেশনা মেনে চলেন।
তারপরও আজকে যারা এর ব্যত্যয় ঘটিয়েছে তাদের সতর্কতার পাশাপাশি জরিমানা করা হয়েছে। সামনেও এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

 
  
%d bloggers like this: