নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

অপরের মালিকানাধীন জমির দলিল জালিয়াতির মামলায় কক্সবাজার পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের পূর্ব বড়ুয়া পাড়ার মনি কুমার বড়ুয়া (৪০) সহ ২ আসামিকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।
সোমবার (২৫ জুলাই) সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (টেকনাফ) আদালতের বিচারক তাদের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেন।
বাদি পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন সিনিয়র আইনজীবী মো. আবদুল মন্নান।
আসামি মনি কুমার বড়ুয়া পূর্ব বড়ুয়া পাড়ার মৃত চান কুমার বড়ুয়ার ছেলে। অপর আসামি আবুল মনসুর (৩৫) কক্সবাজার সদরের পিএমখালীর মুহসিনিয়া পাড়ার বশির আহমদের ছেলে। তারা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (টেকনাফ) আদালতের সিআর মামলা নং—৩৮০/২০১৮ এর আসামি। যার ধারা—৪২০/৪৬৫/৪৬৮/৪৭১/৩৪ পেনাল কোড।
মামলার বাদি টেকনাফ লেঙ্গুর বিলের রাজারছড়ার মৃত মকতুল হোসাইনের ছেলে মো. হাছন (৭২)।
টেকনাফ সাব রেজিস্ট্রি অফিসে ১০ জন মিলে দলিল জালিয়াতির অভিযোগে দায়েরকৃত মামলার বাকি আসামিরা হলেন, নজরুল ইসলাম (৬৬), এমদাদুল ইসলাম (৭৮), মো. নুরুল আলম (৮৮), আবদুল কাইয়ুম, বেলালুল মোস্তফা, (৪৩) সলিমুল মোস্তফা, নাসির উদ্দিন ও সৈকত বড়ুয়া।
মামলাটি সরেজমিন তদন্তপূর্বক গত ৩১ মার্চ আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন কক্সবাজার সিআইডির ইন্সপেক্টর মো. সাইফুল ইসলাম।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা অনুসন্ধান প্রতিবেদনে উল্লেখ করেন, সাফ কবলা দলিল নং—২২৯২, তাং—০১/০৭/২০১০ ইং ও সাফ কবলা দলিল নং—৪০৩৫ তাং ১৯/১২/২০১০ এর সহি মুহুরী নকলের ফটোকপি এবং সিআইডির অংগুলাংক বিশারদের মতামত পর্যালোচনায় বিবাদী নজরুল ইসলাম, এমদাদুল ইসলাম, মো. নুরুল আলম, মনি কুমার বড়ুয়া, আবুল মনসুর, আবদুল কাইয়ুম, বেলালুল মোস্তফা, নাসির উদ্দিন ও সৈকত বড়ুয়াগণের বিরুদ্ধে অভিযোগ সত্য প্রমাণিত হয়েছে।

 
  
%d bloggers like this: