সোয়েব সাঈদ, রামু:
রামুতে বন্ধুদের সাথে মাছ ধরতে গিয়ে খালের পানিতে ডুবে প্রাণ হারিয়েছে যুবক আনসার উল্লাহ (২০)। তিনি রামু উপজেলার চাকমারকুল ইউনিয়নের জারাইলতলী এলাকার মো. কালুর ছেলে। নিখোঁজ হওয়ার একদিন পর মঙ্গলবার, ১৯ জুলাই বেলা ৩টায় তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।
চাকমারকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম সিকদার জানিয়েছেন- সোমবার, ১৮ জুলাই বিকাল ৩ টার দিকে আনসার উল্লাহ সহ ৪ বন্ধু চাকমারকুল পূর্ব মোহাম্মদপূরা ফকিরাসেতু এলাকায় ফাড়িখালে মাছ ধরার জন্য যান। এসময় সবাই সাঁতার দিয়ে খাল পার হওয়ার সময় আনসার উল্লাহ ডুবে যান। পরে অনেক খোঁজাখুজি করে তার সন্ধান না পেলে ওইদিন বিকাল থেকে রামুর ফায়ার সার্ভিসের উদ্ধারকর্মীরা অভিযান শুরু করে। মঙ্গলবার সকাল থেকে চট্টগ্রাম থেকে আসা ডুবুরী দল তাকে উদ্ধারে নেমে পড়ে। বিকাল ৩ টার দিকে ডুবে যাওয়ার স্থান থেকে ৫০ ফুট দূরে আনসার উল্লাহর মৃতদেহের সন্ধান পান। উদ্ধার অভিযান চলাকালে খালের দুপাড়ে হাজার-হাজার নারী-পুরুষের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে।
রামু ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের দলনেতা মোহাম্মদ হাসান চৌধুরী জানান, সোমবার তারা সন্ধ্যা পর্যন্ত অভিযান চালান। রাতেই চট্টগ্রাম ডুবুরি দল এ বিষয়ে অবহিত করা হয়। মঙ্গলবার সকাল থেকে ফায়ার সার্ভিস ও ডুবুরী দল অভিযান চালিয়ে নিখোঁজ আনসার উল্লাহ মৃতদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় এলাকায় শোকাবহ পরিবেশ বিরাজ করছে।

 
  
%d bloggers like this: