জালাল আহমদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি:
নড়াইলের লোহাগড়াসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রতিবাদে দেশের ৬৬ টি নারী, মানবাধিকার ও উন্নয়ন সংগঠনের প্ল্যাটফর্ম “সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি” আজ ১৮ জুলাই ২০২২ সোমবার বিকেলে রাজধানীর শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে মানববন্ধন করেছে। এছাড়াও বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার পরিষদ, সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন, জাগো হিন্দু পরিষদসহ আরো কয়েকটি সংগঠন। এসব সংগঠনের নেতাকর্মীদের শ্লোগান ও বক্তৃতায় উত্তাল ছিল আজকের বিকেলবেলার শাহবাগ।

সামাজিক প্রতিরোধ কমিটি আয়োজিত
মানববন্ধনে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম।
সভাপতির বক্তব্যে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সভাপতি ডা. ফওজিয়া মোসলেম বলেন, “মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে যে স্বপ্ন বিনির্মাণ আমরা করেছিলাম সাম্প্রদায়িক সংহিসতার মাধ্যমে তা ধ্বংস হচ্ছে। দেশের হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর একের পর এক সহিসংতার ঘটনা ঘটলেও ঘটনার পেছনে যারা আছেন , তাদের চিহ্নিত করা যাচ্ছে না। এক্ষেত্রে রাষ্ট্রের দায়িত্ব পালনের শিথিলতা রয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখার দাবি জানান তিনি। পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের যথাযথ ব্যবহার নিশ্চিত না করে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনসহ অন্যান্য আইন বিশেষ উদ্দেশ্য নিয়ে প্রয়োগ করা হচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। সাম্প্রদায়িক সহিসতার মতো যে সব ঘটনা রাষ্ট্রের নীতির বিরুদ্ধে, সেগুলো জাতীয় সংসদে আলোচনা করা এবং জনগণের জানমাল রক্ষায় সরকারে দায়বদ্ধতা প্রমাণের আহ্বান জানান তিনি।
এ সময় আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ নারী প্রগতি সংঘের উপপরিচালক শাহনাজ সুমি, একশন এইড বাংলাদেশের প্রতিনিধি তুহিন আক্তার, গণ সাক্ষরতা অভিযানের রেহানা বেগম, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের সাহিদা পারভিন শিখা, কর্মজীবী নারী থেকে বেলাল হোসেন, আইইডির সঞ্চিতা তালুকদার, নারী মুক্তি সংসদের শিউলি তালুকদার এবং বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মালেকা বানু।
এছাড়াও বাংলাদেশ লিগ্যাল এইড এন্ড সার্ভিসেস ট্রাস্ট (ব্লাস্ট), উইমেন ফর উইমেন, দীপ্ত ফাউন্ডেশন ও নারী সাংবাদিক কেন্দ্র মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে।

অপরদিকে একই সময় এক বিক্ষোভ সমাবেশে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন এর প্রেসিডিয়াম সদস্য
জয়ন্তী রায় বলেন, ” নড়াইলে সাম্প্রদায়িক হামলা মুক্তিযুদ্ধের চেতনার উপর আঘাত, বঙ্গবন্ধুর আদর্শের উপর আঘাত।কথায় কথায় এখন সবাই বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সন্তান,কাজে নয়। সামাজিক আন্দোলনের মাধ্যমে সাম্প্রদায়িক হামলার বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যেতে হবে” ‌‌।

সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন এর সভাপতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক
রোবায়েত ফেরদৌস বলেছেন, ” মাশরাফি বিন মুর্তজা যেমন নড়াইলকে চিনতে পারছেন না তেমনি আমরাও এখন বাংলাদেশ কে চিনতে পারছি না। বাংলাদেশ এখন
আফগানিস্তানে দিকে যাচ্ছে। এদেশ এখন দিন দিন সাম্প্রদায়িক সহিংসতার দিকে যাচ্ছে। বাংলাদেশের পুলিশ সাম্প্রদায়িক বিষবাষ্প দ্বারা আক্রান্ত ” ‌‌‌‌।

 
  
%d bloggers like this: