নীতিশ বড়ুয়া, কক্সবাজার:
কক্সবাজার সদর উপজেলার পিএমখালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সম্মেলন ও কাউন্সিলে সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি বলেছেন, অতীতে বিএনপি সরকার এই পিএমখালীর ভোট নিলেও উন্নয়নে এগিয়ে আসেনাই। বিএনপির সাবেক এমপি, সরকার থেকে বরাদ্দ নিয়ে নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে ব্যয় করেছেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু কণ্যা শেখ হাসিনার সরকার বাংলাদেশের দায়িত্ব্য নেয়ার পর দেশে অভূতপূর্ব উন্নয়ন করে যাচ্ছেন। উন্নয়নের ধারায় পিএমখালীসহ কক্সবাজারের সদর-শহর-রামু-ঈদগাঁও এলাকার প্রতিটি গ্রামকে আমরা শহরের উন্নয়ন দিচ্ছি।
কক্সবাজার-৩(সদর-রামু-ঈদগাঁও) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব সাইমুম সরওয়ার কমল আরো বলেন, দেশীয় ও আন্তর্জাতিক সকল ষড়যন্ত্র উপেক্ষা করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা নিজের দেশের টাকায় পদ্মাসেতু আজ দৃশ্যমান করেছেন। তিনি বলেন, কক্সবাজারের প্রত্যন্ত অঞ্চলে শেখ হাসিনার সময়ে যে উন্নয়ন হয়েছে ১৯৭৫ পরবর্তী অন্যসকল সরকার মিলেও তা করতে পারেনি। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আগামীতেও শেখ হাসিনার নৌকা প্রতীককে বিজয়ী করতে আওয়ামী পরিবারের সকল নেতা-কর্মীকে দায়িত্ব নিতে হবে।
সোমবার (২০জুন) সকাল ১১ টা থেকে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহাবুবুল হক মুকুল।
বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জাফর আলম চৌধুরী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক এড. তাপস রক্ষিত, আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. আব্বাস উদ্দিন চৌধুরী, প্রবীন আওয়ামী লীগ নেতা এড. ইসহাক আহমদ জিপি, বরেণ্য শিক্ষাবিদ মমতাজুল হক, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান।
সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক মাহমুদুল করিম মাদু’র উদ্বোধনী বক্তব্যের মাধ্যমে অনুষ্ঠেয় সম্মেলনে বিশেষ অতিথির মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক কায়ছারুল হক জুয়েল, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক খুরুশকুল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, ঝিলংজা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান টিপু সুলতান চৌধুরী, এড. রেজাউর রহমান রেজা।
পিএমখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল কাদেরের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নাজিমুদ্দিন বাবুলের সঞ্চালনায় সম্মেলনে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল হক জিকু, বাবুল ইসলাম বাহাদুর, বদিউল আলম আমির, তাজমহল সিকদার, আলিম উদ্দিন ঝিলংজা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সরওয়ার আলম চৌধুরী প্রমুখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
পবিত্র কুরআন তিলাওয়াত ও পতাকা উত্তোলনের পর অনুষ্ঠিত সম্মেলনের শুরুতে কাউন্সিল অধিবেশনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থীরা বক্তব্য রাখেন।
বিকাল ৪টায় পিএমখালী উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন ভবনে অনুষ্ঠিত কাউন্সিলে ওয়ার্ড, ইউনিয়ন এবং কো-অপ্ট ভোটাররা সরাসরি ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। কক্সবাজার জেলা ও সদর উপজেলার নেতৃবৃন্দের সার্বিক তত্বাবধানে অনুষ্ঠিত কাউন্সিলে আব্দুল কাদের ছাতা প্রতীক নিয়ে সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে সভাপতি ও নুরুল আজিম গরুর গাড়ী প্রতীক নিয়ে সর্বোচ্চ ভোট পেয়ে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়।
এদিকে পিএমখালী ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের সম্মেলন ও কাউন্সিল অধিবেশনকে ঘিরে ইউনিয়নের নেতাকর্মীদের মাঝে প্রাণচাঞ্চল ফিরে এসেছে। পিএমখালী উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনকে সাঁজানো হয়েছে নতুন সাঁজে। সবকিছু মিলে পিএমখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সম্মেলন ছিল যেন দীর্ঘদিন পর আওয়ামী লীগের মিলন মেলা।

 
  
%d bloggers like this: