মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজারের শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার (আরআরআরসি) শাহ রেজওয়ান হায়াত (অতিরিক্ত সচিব) করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। গত কয়েকদিন ধরে তিনি বিভিন্ন করোনা উপসর্গে ভূগছিলেন। রোববার ১৯ জুন আরআরআরসি শাহ রেজওয়ান হায়াত এর দেহের নমুনা টেস্ট করা হলে তার রিপোর্ট ‘পজেটিভ’ আসে। তিনি করোনা ভ্যাকসিনের বোস্টার ডোজ নিয়েছেন।

বিশ্বস্ত সুত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার (আরআরআরসি) শাহ রেজওয়ান হায়াত জেলার সর্বোচ্চ পদবীধারী সিভিল কর্মকর্তা।

এছাড়া, একইদিন কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের একজন চিকিৎসক, একই হাসপাতালের আইসিইউ’র একজন কর্মকর্তা এবং কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের এক ছাত্রীর টেস্ট রিপোর্ট ‘পজেটিভ’ পাওয়া গেছে।

এদিকে, রোববার ১৯ জুন কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ (কমেক) এর পিসিআর ল্যাবে ১৭০ জনের নমুনা টেস্ট করে ১৭ জনের দেহে করোনা শনাক্ত করা হয়েছে। অবশিষ্ট ১৫৩ জনের নমুনা টেস্ট রিপোর্ট নেগেটিভ পাওয়া যায়। আবার রোববার ১৯ জুন কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে র‍্যাপিড এন্টিজেন টেস্ট (RAT) পদ্ধতিতে ১২ জনের নমুনা টেস্ট করে ৪ জনের দেহে করোনা শনাক্ত করা হয়।

রোববার ১৯ জুন কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে পিসিআর পদ্ধতিতে করোনা শনাক্ত হওয়া ১৭ জন রোগীর মধ্যে একজন পূর্বে আক্রান্ত হওয়া রোগীর ফলোআপ টেস্ট রিপোর্ট। বাকী ১৬ জন সকলেই নতুন রোগী।

নতুন শনাক্ত হওয়া পজেটিভ রোগীর মধ্যে কক্সবাজার সদর উপজেলার রোগী ৮ জন, রামু উপজেলায় ১ জন, উখিয়া উপজেলায় ১জন, টেকনাফ উপজেলায় ২জন, চকরিয়া উপজেলায় ১ জন এবং মহেশখালী উপজেলার রোগী ৩ জন। কক্সবাজার জেলায় রোববার ১৯ জুন করোনা আক্রান্তের হার ১০ দশমিক ৯৪ শতাংশ।

 
  
%d bloggers like this: