মো. নুরুল করিম আরমান, লামা প্রতিনিধি

বান্দরবান জেলার লামা, আলীকদম ও নাইক্ষ্যংছড়ি -এ তিন উপজেলায় সাম্প্রদায়িক অপশক্তি, দেশবিরোধী ও সরকার বিরোধী অপপ্রচার, গুজব, হিংসাতœক ও ধ্বংসাতœক রাজনীতির বিরুদ্ধে কথামালা প্রচার করে চলেছে লামা তথ্য অফিস। গত মার্চ মাস থেকে গণযোগাযোগ অধিদপ্তরের বার্ষিক কর্ম সম্পাদন চুক্তির আওতায় জনস্বার্থে এলাকায় সড়ক প্রচারের মাধ্যমে এ কার্যক্রম শুরু করা হয়। তিন উপজেলার প্রত্যন্ত দুর্গম পাহাড়ি হাট-বাজার, স্কুল,কলেজ মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন জনবহুল স্থানে এ প্রচার কার্যক্রম চলছে। শুধু তাই নয়, প্রতিটি অফিস, আদালত, বাস স্টেশন, পৌরসভা ও উপজেলা পরিষদ চত্বরে পোস্টার লিপলেট ও বিলবোর্ড স্থাপন সহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মাধ্যমেও এ প্রচার কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে তথ্য অফিস। এছাড়া তথ্য অফিস করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধ ও টিকা গ্রহণ, নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা রোধ, জন্ম নিবন্ধন, যৌতুক, বাল্য বিবাহ, মাদক, মৃত্যু নিবন্ধন, নারীর ক্ষমতায়ন ও সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচী, মা ও শিশুর স্বাস্থ্য পরিচর্যা, নিরাপদ মাতৃত্ব অটিজম ও শিশুর মানসিক স্বাস্থ্য এবং শিশুর যথাযথ বিকাশ, স্যানিটেশন, পরিবেশ সুরক্ষা ও দূর্যোগকালীন নারী ও শিশুর সচেতনতা, শিশুর পানিতে ডুবা প্রতিরোধ, শিক্ষা ও পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা, ডেঙ্গু প্রতিরোধ, প্রজনন স্বাস্থ্য, মা ও শিশুর স্বাস্থ্যসহ জনসংখ্যা, প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধ ও প্রতিকার, নিরাপদ সড়ক বিষয়ের ওপর সচেতনতামূলক প্রচার করে আসছে। সহকারী তথ্য অফিসার খন্দকার তৌহিদের নেতৃত্বে ঘোষক ছাহ্লাচিং মার্মা প্রচারে সহায়তা করছেন।

এ বিষয়ে লামা সদর ইউনিয়নের মো. হারুন, পৌরসভা এলাকার মো. শফি, আলীকদম উপজেলার চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের আবদুর রহমান ও মিনারসহ সহ অনেকে জানান, অনেক বিষয় আমাদের জানা ছিল না। তথ্য অফিসের এ প্রচার কার্যক্রমের মাধ্যমে গুজব সহ অনেক বিষয়ে জানতে পারলাম। আশা করি এ প্রচার দেশের জন্য সুফল বয়ে আনবে। এদিকে লামা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মোস্তফা জামাল বলেন, তথ্য অফিসের এ প্রচারের বিষয়গুলো জনগন গুরুত্বসহকারে নিচ্ছেন। আশা করি এতে প্রত্যন্ত গ্রামের সাধারণ মানুষগুলো অনেকটা সচেতন হয়ে উঠবেন। একই কথা জানালেন পাশের আলীকদম উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আবুল কালামসহ নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. শফিউল্লাহ।

কথামালা প্রচারের সত্যতা নিশ্চিত করে তথ্য অফিস লামার সহকারী তথ্য অফিসার খন্দকার তৌহিদ বলেন, গনযোগাযোগ অধিদপÍরের নিয়মিত প্রচার কার্যক্রমের আওতায় লামা, আলীকদম ও নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলায় জনসচেতনতা মূলক প্রচার কার্যক্রম করা হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, উগ্রবাদ ও ধর্মের অপব্যাখ্যাকারীদের কাছ থেকে দূরে থাকা, গুজব রটানো, প্রতিহিংসার রাজনীতি ও অপরাজনীতি থেকে বিরত থাকা, অন্যের মতের প্রতি শ্রদ্ধা প্রর্দশন করাসহ প্রভৃতি জনস্বার্থ বিষয় প্রচার অব্যাহত থাকবে।

 
  
%d bloggers like this: