চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

চট্টগ্রামের কর্ণফুলীর চরপাথরঘাটা ইউনিয়নে নির্বাচনোত্তর সহিংসতায় ছুরিকাঘাতে মোঃ রমজান আলী (৩২) নামে এক যুবক খুন হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) রাত সাড়ে ৮টায় ইছানগর ৭নং ওয়ার্ডের বাসু বাড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেন কর্ণফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দুলাল মাহমুদ। জানা যায়, নিহত রমজান আলীর পিতা বাদশা ফকির। রমজান কর্ণফুলী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক ছিলেন।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই আলা মিয়া তালুকদার বলেন, গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে চমেক হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

নিহতের আত্বীয় খোকন গণ্যমাধ্যমকে জানান, গতবুধবার কর্ণফুলী থানার চরপাথরঘাটা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে সদস্য পদে জয়ী হন সাইদুল হক মেম্বার। তাঁর অনুসারী হিসেবে পরিচিত খোরশেদ ও শাহেদসহ কয়েকজন মিলে ছুরিকাঘাত করে পরাজিত মেম্বার ইসহাকের অনুসারী মোঃ রমজান আলীকে। পরে তাকে উদ্ধার করে মেডিকেলে আনলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। মরদেহ এখন হাসপাতালে মর্গে রয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সংশ্লিষ্ট এলাকার সদ্য নির্বাচিত ইউপি সদস্য সাইদুল হক বলেন, ‘আমি গ্যাজেটের জন্য উপজেলায় গিয়েছিলাম। ওখান থেকে আসার সময় শোনলাম রমজান আলী নামে একজন ছুরিকাঘাতে মারা গেছেন। যারা মারামারি করছে ওরা আমার এখানকার ভোটার নয় বলে মনেহয়। আমি যতটুকু জেনেছি, ততটুকু প্রশাসনকেও বলেছি।

কর্ণফুলী উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক সাজ্জাদ হোসেন সাজিদের ফেসবুক স্ট্যাটাস সূত্রে জানা যায়, নিহত রমজান ইউপি নির্বাচনে নৌকার নিবেদিত কর্মী ছিলেন। নির্বাচনের শুরু থেকেই তিনি নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে প্রচার প্রচারণা ও কাজ করেছিলেন।

 
  
%d bloggers like this: