অনলাইন ডেস্ক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে ‘সত্য কথা’ বলার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমি ওবায়দুল কাদের সাহেবকে ধন্যবাদ জানাতে চাই। কারণ তিনি সত্য কথা বলেছেন।তার দলের লোকেরা কোটি কোটি টাকা পাচার করেছে। এ ধরনের লোকগুলো তাদের দলে আছে। এই দলের এমপি-মন্ত্রীরা দেশের টাকা লুট করে দেশের অর্থনীতিকে ভঙ্গুর করে দিয়েছে।’

শুক্রবার বিকালে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার জগ্ননাথপুর ইউনিয়নের খাগড়াবাড়ি এলাকায় ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময় সহিংসতায় নিহত ও আহতদের পরিবারের মাঝে আর্থিক সহায়তা প্রদান শেষে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আওয়ামী লীগের লোকেরা কোটি কোটি টাকা পাচার করেছে, লুট করেছে। এসব লোকজনকে তারা বাদ দিতে চান। এই লোকগুলো তাদের দলে আছে এটা স্বীকার করার মাধ্যমে উনি (ওবায়দুল কাদের) মেনে নিয়েছেন আওয়ামী লীগ এ কাজগুলোর সঙ্গে জড়িত। বিএনপি প্রতিনিয়ত বলে আসছে আওয়ামী লীগের এসব লোকেরা বাংলাদেশকে শেষ করছে, লুট করছে, তারা বাংলাদেশকে একটা ভঙ্গুর অর্থনীতিতে পরিণত করতে চাচ্ছে।’

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘সরকারের বিরুদ্ধে দেশে আন্দোলন শুরু হয়েছে। সব রাজনৈতিক দলগুলো তাদের কর্মসূচি দিচ্ছে। আজকে যুগপৎ আন্দোলন তৈরির সময় এসেছে। ১৯৯৬ সালে সংবিধানে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের কথা উল্লেখ ছিল না। কিন্তু জনগণের চাহিদা অনুযায়ী সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া সংবিধানে তা সন্নিবেশিত করেছিলেন। তিনি জনগণের পক্ষের মানুষ। ফখরুল বলেন, জনগণ চায় নিরপেক্ষ নির্বাচন। তাই জনগণের দাবি অনুযায়ী তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে। না হলে দেশে বিপরীত পরিস্থিতি দেখা দিতে পারে।’

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, সহসভাপতি আল আমিন আলম, সাধারণ সম্পাদক ও মির্জা ফখরুলের ছোটভাই মির্জা ফয়সল আমিন, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম, উপজেলা বিএনপির নেতা আব্দুল হামিদ, জগন্নাথপুর ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান লিটনসহ বিএনপি ও দলটির সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন স্তরের নেতাকর্মী।