আব্দুস সালাম,টেকনাফ(কক্সবাজার):
কক্সবাজারের টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়ের করাচি পাড়া এলাকায় র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১৫)-এর সদস্যরা অভিযান চালিয়ে ৫ হাজার ৭শ পিস ইয়াবাসহ হায়াতউল্লাহ (২৩) নামে এক রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়েছে।

কক্সবাজার র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পরিচালক (ল’ এন্ড মিডিয়া) ও সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ বিল্লাল উদ্দিন গণমাধ্যমকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।
তিনি জানান, বুধবার রাতে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, একজন মাদক ব্যবসায়ী টেকনাফ থানাধীন সাবরাং ইউপিস্থ করাচিপাড়া সাকিনস্থ এলাকায় মাদকদ্রব্য ক্রয়-বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। এমন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৫ এর একটি আভিযানিক দল উক্ত স্থানে পৌঁছালে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে একজন ব্যক্তি পলায়নের চেষ্টাকালে হায়াতউল্লাহ (২৩) নামে এক (রোহিঙ্গা), পিতা-সলিমুল্লাহ, মাতা-জাহেদা বেগম, সাং-কুতুপালং, ক্যাম্প-৬, ডি/৪, ব্লক-ই/১১, থানা-উখিয়া, জেলা-কক্সবাজারকে আটক করতে সক্ষম হয়। ঐ সময় উপস্থিত সাক্ষীদের সম্মুখে ধৃত ব্যক্তির দেহ তল্লাশী করে হাতে থাকা শপিং ব্যাগ হতে সর্বমোট ৫ হাজার ৭শ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধৃত ব্যক্তি জানায়, জব্দকৃত মাদকদ্রব্য বিক্রির উদ্দেশ্যে তার হেফাজতে রেখেছিল এবং দীর্ঘদিন যাবৎ সে মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত।

তিনি আরো জানান,উদ্ধারকৃত ইয়াবাসহ আটক আসামীর বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে একটি নিয়মিত মামলা রুজু করে টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।