অনলাইন ডেস্ক: বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, অর্থনীতি ধসে পড়ার উপক্রম হয়েছে। একের পর এক জিনিসপত্রের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে, সরকারের কোনো মাথা ব্যথা নেই। তারা দুর্নীতি ও চুরি-ডাকাতিতে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। তাই এ সরকারের পতন চায় দেশের মানুষ।

বৃহস্পতিবার (১২ মে) বিকেলে লালমনিরহাটের বড়বাড়ি শহীদ আবুল কাশেম মহাবিদ্যালয় মাঠে রংপুর বিভাগীয় জিয়া স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আসুন, দলমত নির্বিশেষে সকল পেশার মানুষ ঐক্যবদ্ধ হই। আমরা সকল দলকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই ফ্যাসিবাদী সরকারকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করি। আমরা বার বার বলে আসছি, আজও বলছি, পদত্যাগ করুন, নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করুন। নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নতুন নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় নির্বাচন করুন এবং জনগণের রায়ে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে কার্যকর সংসদ গড়ে তুলুন।

মির্জা ফখরুল বলেন, আজ প্রত্যেকটি ঘটনা পর্যালোচনা করলে দেখবেন, বাংলাদেশ ক্রমান্বয়ে অবনতির দিকে যাচ্ছে। স্বাধীনতার ৫০ বছরেও স্বাধীনতার স্বপ্ন পূরণ হয়নি। ১৯৭১ সালের মতো আবারও ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের মাধ্যমে স্বাধীন ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তোলা হবে। এতে বিএনপির কোনো বিকল্প নেই। ঐক্যবদ্ধ জনগণের কোনো বিকল্প নেই।

বিএনপির মহাসচিব আরও বলেন, আমাদের ৩৫ লাখ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। এসব মামলায় বাড়িতে থাকতে না পেয়ে অনেক নেতাকর্মী ঢাকায় রিকশা চালাচ্ছে, হকারি করছে। জনগণের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রতিষ্ঠার কথা বলায় এসব নেতাকর্মী ফ্যাসিবাদ সরকারের নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। এসব মিথ্যা মামলা তুলে নেয়ারও দাবি জানান মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক উপমন্ত্রী অধ্যক্ষ আসাদুর হাবিব দুলুর সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্ত্রী উদযাপন জাতীয় ক্রীড়া কমিটির সদস্য সচিব ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হক, কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য তাবিথ আউয়াল, জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান বাবলা, সদর বিএনপির আহ্বায়ক একেএম মমিনুল হকসহ রংপুর বিভাগের বিএনপির নেতার্কমীরা।

রংপুর বিভাগীয় জিয়া স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে ২-০ গোলে লালমনিরহাট জেলা বিএনপি একাদেশের কাছে পরাজিত হয় পঞ্চগড় জেলা বিএনপি একাদশ। এ টুর্নামেন্টে রংপুর বিভাগের ৮টি জেলা দল অংশগ্রহণ করেছে। ২৬ মে টুর্নামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।