এস.এম. জুবাইদ,পেকুয়াঃ

পেকুয়ায় এক বসতবাড়িতে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা সংঘটিত হয়েছে। গাছ দিয়ে দ্বিতল ভবনের ছাদের সিড়ির লোহার দরজা কেটে বসতবাড়ির ভেতরে প্রবেশ করে। এ সময় ফ্রি স্টাইলে ওই বসতঘরে রক্ষিত ৩ ভরি স্বর্ণালংকার, নগদ ১ লক্ষ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

এ দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনাটি ঘটে উপজেলার সদর ইউনিয়নের উত্তর মেহেরনামা আবদুল হামিদ সিকদার পাড়ার মৃত হাজী মোক্তার আহমদের পুত্র আলা উদ্দিনের বসতবাড়িতে।

স্থানীয় সূত্রে জানায়, গত বৃহস্পতিবার আলা উদ্দিন স্বস্ত্রীক চট্টগ্রাম শহরে যান। তিনি শারীরিক অসুস্থতায় ভোগছিলেন। হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তার রবিউল আলমের কাছে চিকিৎসা নিতে চট্টগ্রাম শহরে গিয়েছেন। চিকিৎসা নিতে প্রায় ৬ দিন চট্টগ্রাম শহরে অবস্থান করেন।

১০ মে মঙ্গলবার সকালে চট্টগ্রাম থেকে পেকুয়ায় নিজ বাড়িতে আসেন আলা উদ্দিন ও তার স্ত্রী আখি আক্তার। বাড়িতে এসে দেখতে পায় দুর্ধর্ষ চুরির ওই দৃশ্য। আলমিরার ড্রয়ার খোলা। স্টিল আলমিরার তালা ভেঙ্গে নগদ টাকা ও ৩ ভরি স্বর্ণ লুট হয়।

আলা উদ্দিন এ প্রতিবেদক কে জানান, আমার দেখা এটি প্রথম চুরির ঘটনা। আমি ডাক্তার দেখাতে চট্টগ্রামে গিয়েছিলাম। ওখানে চিকিৎসা নিতে ৬ দিন ছিলাম। সকালে এসে দেখতে পায় আমার বাড়িতে চুরি হয়েছে। বাড়ির পশ্চিম পাশে টিনের ছালের রান্না ঘর আছে। এর পাশে গাছ আছে। গাছ বেয়ে টিনের ছালে উঠে। সেখান থেকে ছাদে উঠে সিড়ি ঘরের লোহার দরজা কেটে পিছন দিক থেকে বাড়িতে প্রবেশ করে।

এ ব্যাপারে পেকুয়া থানার ওসি শেখ মো: আলী জানান, বিষয়টি পুলিশ গুরুত্বের সাথে দেখবে।