আব্দুস সালাম,টেকনাফ:
কক্সবাজারের টেকনাফ পৌরসভার বাসস্টেশন বাজারে অসহায় মানুষের জন্য এই উদ্যোগ নিয়েছেন টেকনাফ স্থলবন্দরের এম কায়সার জুয়েল নামের একজন তরুণ ব্যবসায়ী। কায়সার জুয়েল মূলত টেকনাফ স্থলবন্দরে আমদানি–রপ্তানির ব্যবসা করেন।
সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়,সবজির দোকানের সাথে একটি প্লাস্টিকের ঝুড়ি ঝোলানো। ঝুড়ির গায়ে সাঁটানো কাগজে লেখা ‘সবজির দান বাক্স’। বাজারের কেনাকাটার সময় সামর্থ্যবান মানুষ এই বাক্সে সবজি দান করতে পারেন। আর যাঁদের সবজি কেনার টাকা নেই, তাঁরা এ বাক্স থেকে বিনা মূল্যে সবজি নিতে পারবেন।
তিনি জানান, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির কারণে নিম্ন আয়ের অনেক মানুষ বাজার থেকে প্রয়োজনীয় কেনাকাটা করতে পারছেন না। এ জন্য তিনি এই মানবিক উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন।

বাসস্টেশন বাজারের সবজি বিক্রেতা মোহাম্মদ আবদুস ছমদের দোকানে বাক্সটি রাখা হয়েছে। গত মঙ্গলবার বিকালে কায়সার বাক্সটি ওই দোকানে রাখেন। এর পর থেকেই পুরো বাজারে বাক্সটির নাম ছড়িয়ে পড়েছে। অনেকেই নিজের বাজারের ব্যাগ থেকে কিছু সবজি ওই বাক্সে রেখে যাচ্ছেন। আবার যাঁদের সবজি কেনার টাকা নেই, তাঁরাও বাক্স থেকে বিনা মূল্যে সবজি নিয়ে হাসিমুখে বাড়ি ফিরছেন।

কায়সার বলেন, বর্তমান বাজারে সবজিসহ প্রায় সব নিত্যপণ্যের দাম অনেক বেড়ে গেছে। এত দাম দিয়ে অনেকের সবজি কেনার সামর্থ্য নেই। আবার অনেকে লজ্জায় অন্যের কাছ থেকে সাহায্যও চান না। এই পরিস্থিতিতে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য এই উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। প্রথমে তিনি নিজে ৫০০ টাকার সবজি রেখে এই উদ্যোগের সূচনা করেছেন।

সবজি বিক্রেতা আবদুস ছমদ বলেন, তাঁর দোকানে প্রায়ই দরিদ্র মানুষ সবজি চাইতে আসেন। আবার অনেকে দাম শুনে সবজি না কিনে ফিরে যান। কিন্তু প্রতিদিন একার পক্ষে সবাইকে সাহায্য করা সম্ভব হয় না। তবে এখন সবজির দান বাক্স চালু করায় অনেক মানুষের উপকৃত হবেন।

 
  
%d bloggers like this: