মোঃ জয়নাল আবেদীন টুক্কু:
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়িতে ছাগল নিয়ে বিরোধের জেরে আপন ভাইয়ের হাতে গুরুতর আহত হয়েছেন বোন খুরশিদা বেগম(৩৮) নামের এক মহিলা। গত শনিবার উপজেলার সদর ইউনিয়নের কম্বনিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। খুরশিদার স্বামী কাদের হোসেন জানান তার স্ত্রীর মায়ের দেওয়া একটি ছাগল নিয়ে আপন ভাই ফরিদুল আলম (৪৫), তার স্ত্রী ও মেয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে খুরশিদাকে ব্যাপক মারধর করে। এক পর্যায়ে ফরিদ বোনের মাথা লক্ষ করে দা দিয়ে কোপ দিলে সে রক্তাক্ত আঘাত প্রাপ্ত হয়ে ঘটনাস্থলে লুটে পড়ে। এ সময় পার্শ্ববর্তী লোকজন ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে নাইক্ষ্যংছড়ি হাসপাতালে নিয়ে গেলে অবস্থার অবনতি দেখে ডাক্তার উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেপার করে। হাসপাতাল সূত্রে জানা যায় বর্তমানে আহত খুরশিদা বেগমের অবস্থা সংকটাপন্ন যে কোন মহুর্তে অবস্থা খারাপের দিকে যেতে পারে। এ ঘটনায় খুরশিদার স্বামী বাদী হয়ে নাইক্ষ্যংছড়ি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। ঘটনার বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড মেম্বার আলি হোসেন জানান, যেহেতু ভাই ও বোনের বিষয় তাই এটা নিয়ে থানায় বসার কথা ছিল রোগীর অবস্থার অবনতি ঘটেছে তাই বসা হয়নি। এদিকে অভিযুক্ত ফরিদুল আলম থেকে জানতে চাইলে তিনি ঘটনার বিষয়ে সততা স্বীকার করে বলেন, আমি অনুতপ্ত বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চলছে।