সিবিএন:
কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে গোসল করতে নেমে প্রায় ঘটছে মৃত্যুর ঘটনা। সর্বশেষ ১১ মার্চও গোসল করতে মারা গেছে রামুর এক কলেজছাত্র। বার বার মৃত্যুর ঘটনা ভাবিয়ে তুলেছে প্রশাসনকে।

প্রশাসন বলছে, সৈকতে গোসল মৃত্যুর সব ঘটনাই অসচেনতার কারণে ঘটে থাকে। তাই মানুষকে সচেতন করতে বড় আকারের এক মহড়া ক্যাম্পেইন করেছে জেলা প্রশাসন।

শনিবার সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় সেন্টার ফর ইনজুরি প্রিভেনশন অ্যান্ড রিসার্চ বাংলাদেশ নামক বেসরকারি সংস্থার ক্যাম্পেইন আয়োজন করে। পরে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মোঃ মামুনুর রশীদ।

তিনি বলেছেন, সৌন্দর্যবোধ উপভোগ করার পাশাপাশি নিরাপত্তাবোধ থাকতে হবে। তা না হলে কক্সবাজারের পর্যটন শিল্পের সুনাম ক্ষুন্ন হবে। এই জন্য সাগরে নামার আগে পর্যটকদের অত্যন্ত সচেতন হতে হবে।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রট আবু সুফিয়ানের সভাপতিত্বে অনূষ্ঠিত অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি রেজাউল করিম, পর্যটন সেলের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সৈয়দ মুরাদ ইসলাম, টুয়াক সভাপতি রেজাউল করিমসহ সংশ্লিষ্টরা।

সাগরে নেমে গোসল করতে নেমে মৃত্যু রোধে আয়োজিত ক্যাম্পেইনে অংশ নেন সি সেইফ লাইপগার্ডের সদস্যরা। ক্যাম্পেইনে মৃত্যুরোধে করণীয় সম্পর্কে নানা দিক তুলে ধরা হয়।